তারিখ : ১৭ জুন ২০১৯, সোমবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ত্রিশালে কলা গাছের শহীদ মিনারে শিশু শিক্ষার্থীদর শ্রদ্ধা

ত্রিশালে কলা গাছের শহীদ মিনারে শিশু শিক্ষার্থীদর শ্রদ্ধা
[ভালুকা ডট কম : ২১ ফেব্রুয়ারী]
মহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ময়মনসিংহের ত্রিশালে কলা গাছের শহীদ মিনার নির্মাণ করে তাতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানালো চ্যাম্পিয়ন ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শিক্ষার্থীরা। ভাষা দিবসে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে হয় এমন ভাবনাই শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে কলাগাছ দিয়ে নির্মাণ করা শহীদ মিনারে তারা জানাই গভীর শ্রদ্ধা।

বিদ্যালয়টিতে স্থায়ী কোনো শহীদ মিনার না থাকায় কলা গাছের অস্থায়ী শহীদ মিনারে তারা ফুল দিয়ে প্রতি বছর শ্রদ্ধা নিবেদন করে থাকে। তাদের মধ্যে অনেকে টিফিনের টাকা দিয়ে ফুল কিনে শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধা জানায়।বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের বীররামপুর চ্যাম্পিয়ন ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে গিয়ে দেখা যায়, বিদ্যালয়ের মাঠে কলাগাছ পুতে শহীদ মিনার বানিয়ে তার উপর ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে শিশুরা।

ভাষা আন্দোলনের বিষয়ে স্যার, ম্যাডামদের কাছ থেকে শুনে এবং বই পড়ে আমরা জানি ২১ ফ্রেব্রুয়ারী মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস। তারা টিফিনের টাকা দিয়ে ফুল কিনে কলা গাছের শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে আসছে বলে জানান চ্যাম্পিয়ন ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে ৪র্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থী মীম ও তানিয়া আক্তার।

ভাষা শহীদদের সম্মানে আমাদের বিদ্যালয়ের কলা গাছ দিয়ে শহীদ মিনার বানিয়েছে, আমরা সেখানে ফুল দিয়ে শহীদদের স্বরণ করে শ্রদ্বা নিবেদন করছি। এমনটাই জানালো বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী তৌকির আহমেদ।৫মশ্রেণীর আরেক শিক্ষার্থী সালমা আক্তার বলেন, প্রতি বছর ভাষা শহীদদের ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে আমাদের খুব ভালো লাগে। তাই আমরা শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাই।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হারুনুর রশিদ জানান, অর্থনৈতিক অস্বচ্ছলতার কারনে কয়েক বছর যাবত চেষ্টা করেও স্থায়ী ভাবে একটি শহীদ মিনার নির্মাণ করতে না পারলেও ভাষা শদীহদের প্রতি সম্মান জানাতে ও আগামী প্রজন্মকে ভাষা ও ভাষা শহীদদের স্বরণ রাখতে প্রতি বছর কলা গাছ দিয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ করে সেখানে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে থাকি।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

শিক্ষাঙ্গন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৭৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই