তারিখ : ২০ জুলাই ২০১৯, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

বাকশাল আমলের নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য

বাকশাল আমলের নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য এবং বিশ্লেষক প্রতিক্রিয়া
[ভালুকা ডট কম : ১৯ মার্চ]
দেশের নির্বাচন ব্যবস্থা নিয়ে দেশের অভ্যন্তরে এবং আন্তজার্তিক মহলে নানা সমালোচনা, অনাস্থা এবং অনিয়মের অভিযোগের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাকশাল আমলের নির্বাচন ব্যবস্থা যে কতটা উপযুক্ত ছিল, তা দেশের মানুষ একদিন ভালোভাবেই উপলব্ধি করবে।

সোমবার (১৮ মার্চ) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ আয়োজিত শিশু দিবসের আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু যে ব্যবস্থা চালু করেছিলেন, তাতে ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো। ক্ষমতা বিকেন্দ্রীকরণের মাধ্যমে বাংলাদেশের উন্নয়ন করতে চেয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। ১৯৭৫ সালের জানুয়ারি মাসে দেশের সব রাজনৈতিক দল নিষিদ্ধ করে আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি ও বাংলাদেশের কমিউনিষ্ট পার্টি (সিপিবি)- এ তিনদলের ঐক্যজোট হিসেবে বাংলাদেশ কৃষক শ্রমিক আওয়ামীলীগ-বাকশাল প্রতিষ্ঠিত হয়।

বাকশালের অন্যতম শরিক দল সিপিবি’র বর্তমান সাধারণ সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম সেসময়ের প্রেক্ষাপট উল্লেখ করে জানান, বাকশাল ছিল একদলীয় শাসন ব্যবস্থা। সে সময় রাষ্ট্রপতি শাসিত সরকার চালু করে জেলায় জেলায় গভর্নর নিয়োগ শুরু হয়েছিল। সেখানে বহুদলীয় নির্বাচনের কোন ব্যাপার ছিলনা।

এ প্রসঙ্গে ইসলামী আন্দোলন, বাংলাদেশ এর মহাসচিব হাফেজ মাওলানা ইউনুস আহমেদ বলেন, সেদিন বাকশাল গঠনের মাধ্যমে জনগনের মত প্রকাশ এবং ভোটাধিকার কেড়ে নয়া হয়েছিল; আজকে সে অবস্থার সৃষ্টি করা হয়েছে। এভাবে চললে মানুষের ক্ষোভ পুঞ্জিভূত হয়ে অনাকাংঙ্খিত পরিনতি ডেকে আনতে পারে।

বাকশালের অন্যতম গুরুত্বপূর্ন নেতা বর্তমানে গণফোরাম সভাপতি প্রবীণ আইনজীবি ড.কামাল হোসেন গতকাল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিন উপলক্ষে সুপ্রিম কোর্ট মিলনায়তনে আয়োজিত  আলেচনা অনুষ্ঠানে অভিযোগ করেন, দেশে আইনের শাসন ও গণতন্ত্র নেই। সবাই মিলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশের মালিকানা বুঝে নেয়ার আহবান জানান বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট এ রাজনৈতিক নেতা।

জাতীয় ও স্থানীয় নির্বাচনে  ব্যপক অনিয়ম, বর্জন এবং ভোটারদের অনাগ্রহের  প্রেক্ষাপটে নির্বাচনকে অর্থবহ ও গণতন্ত্রকে অবারিত করার স্বার্থে নির্বাচন পদ্ধতির সংস্কার প্রয়োজন বলে মনে করছে খোদ  নির্বাচন কমিশন। সোমবার (১৮ মার্চ) বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে এক  সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার এ অভিমত ব্যক্ত করেন।

লিখিত বক্তব্যে মাহবুব তালুকদার বলেন, নির্বাচনকে অর্থবহ করার জন্য এবং গণতন্ত্রকে অবারিত করার স্বার্থে নির্বাচন পদ্ধতির সংস্কার প্রয়োজন। তবে নির্বাচন পদ্ধতির সংস্কার নির্বাচন কমিশনের কাজ নয়, রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের বিষয়। তিনি বলেন, ভবিষ্যতে অবাধ, সুষ্ঠু, গ্রহণযোগ্য, বিশ্বাসযোগ্য, আইনানুগ ও উন্মুক্ত নির্বাচন হলে এবং সব প্রার্থীর সমান সুযোগ নিশ্চিত হলে সব দল তাতে অংশগ্রহণ করবে বলে আশা করা যায়।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অন্যান্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৩ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই