তারিখ : ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ

জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ
[ভালুকা ডট কম : ০৬ এপ্রিল]
৬ই এপ্রিল -২০১৯ রোজ শনিবার থেকে সারাদেশে শুরু হয়েছে জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ। এটি ২২ তম কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ যা চলবে আগামী ১১ই এপ্রিল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত। দেশের প্রাথমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫ থেকে ১১ বছর এবং মাধ্যমিক পর্যায়ের ১২ থেকে ১৬ বছর বয়সী সব শিশুকে একটি করে মেবেনডাজল ৫০০ মি.গ্রা কৃমিনাশক বড়ি খাওয়ানো হবে।

সারাদেশের এক লাখ ৩৩ হাজার ৯০৭টি প্রাথমিক ও ৩০ হাজার মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় চার কোটি শিশুকে কৃমিনাশক ওষুধ খাওয়ানো হবে। দেশব্যাপী খুদে ডাক্তার টিমের মাধ্যমে কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ পরিচালনা করা হবে। কৃমি শিশুদের শরীর থেকে পুষ্টি চুষে নেয় ফলে শিশু অপুষ্টিতে ভুগে। এছাড়াও কৃমি থেকে  রক্তশূন্যতা, শ্বাসকষ্ট, এলার্জি, জন্ডিসসহ বিভিন্ন জটিলতায় প্রাণহানি ঘটতে পারে। অবশ্যই খালি পেটে নয়, কৃমির ওষুধ ভরা পেটে খাবে।

কৃমিনাশক ওষুধ খেয়ে খুব বিরল ক্ষেত্রে বমি বমি ভাব হতে পারে যা খুবই সাময়িক। এছাড়া অন্য কোন জটিলতা হয় না। ওষুধ খেয়ে রোদে না থাকা ও পিটি প্যারেড না করা। কোন গুজবে কান দিবেন না। আপনার শিশুকে বছরে কমপক্ষে দুইবার কৃমিনাশক খাওয়ালে অপুষ্টি ও রক্তস্বল্পতায় প্রাণহানি হবে না। #





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকার বাইরে বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৪ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই