তারিখ : ১৩ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় তবলা সহকারির বিরুদ্ধে মামলা

কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় তবলা সহকারির বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগঃ আদালতে মামলা
[ভালুকা ডট কম : ১৫ মে]
ময়মনসিংহের ত্রিশালে অবস্থিত জাতীয় কবি কাজী নজরূল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগের তবলা সহকারি মশিউর রহমানের বিরোদ্ধে দুর্নীতি অনিয়মের অভিযোগে আদালতে মামলা করেছে ঐ এলাকার ৫জন ভূক্তভোগী।

অভিযোগে জানাযায়,ডেমোনেস্ট্রেটর,সংগীত বিভাগের তবলা সহকারি মশিউর রহমান হলিষ্ট্রিক ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানীর চেয়ারম্যান হিসেবে পরিচিত। জাতীয় কবি কাজী নজরূল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন দপ্তরে চাকুরী এবং হলিষ্ট্রিক ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানীতে লভ্যাংশ বিক্রির নামে ৫জন ব্যাক্তির নিকট থেকে (১কোটি,২৮লক্ষ টাকা  জালিয়াতির মাধ্যমে হাতিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বিভিন্ন ব্যাক্তিদের সাথে দুর্নীতি অনিয়ম এবং প্রতারনার অভিযোগ এনে ১কোটি,২৮লক্ষ টাকা জালিয়াতির মাধ্যমে হাতিয়ে নেওয়ায় আদালতে একাধিক মামলা  হলেও বিষয়টি জানার পরেও এ নিয়ে এখনো কোনো  ব্যবস্থা নেয়নি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার লক্ষে ২০১৯ সালের ৬মার্চ ত্রিশাল পৌরসভার নামাপাড়া গ্রামের কামরুল ইসলামের ছেলে ইমতিয়াজ নিশাতের নিকট থেকে হলিষ্ট্রিক ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানীর লভ্যাংশের অংশিধার হিসেবে বাবার জমি বিক্রির ২০লক্ষ টাকা থেকে ১৬লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করেন। টাকা বিনিয়োগ করেছিলেন ময়মনসিংহ এন .সি.সি ব্যাংকের ৩ মাস মেয়াদী একটি চেক গ্রহন করে। ৩মাস পর ব্যাংকে গেলে মশিউরের একাউন্টে টাকা নেইি বলে জানান ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। এব্যাপারে প্রতারনার অভিযোগ এনে ময়মনসিংহ আদালতে নিশাত বাদী হয়ে মামলা করেন। যা চলমান রয়েছে।

২৩এপ্রিল ২০১৯ স্থানীয় মৃত জামাল উদ্দীনের ছেলে শফিকুল ইসলামের কাছ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত তবলা সহকারী মশিউর রহমান তার নিজ এলাকা রাজশাহী জেলার বাঘা উপজেলায় প্রতিষ্ঠিত হলিষ্ট্রিক ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানীর চেয়ারম্যান্ এর পিতা নুরুজ্জামান ভান্ডারী সন্তানের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান দেখিয়ে বিশেষ প্রয়োজনে ১০লক্ষ টাকা হাওলাদ নেন প চেক প্রদানের মাধ্যমে। ২২মে ২০১৮ ত্রিশাল নামাপাড়া গ্রামের  মৃত ইমান উদ্দীনের ছেলে সুজন মিয়ার নিকট থেকে ৩০০টাকার নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করে ৩০লক্ষ টাকা নেয়। নির্ধারিত ৪৫ দিনের মধ্যে টাকা ফেরত না দেওয়ায় আদালতের মাধ্যমে মশিউর রহমান বরাবরে লিগ্যাল নোটিশ করেন। লিগ্যাল নোটিশে অবহিত হয়ে টাকা পরিশোধ না করায় গ্রেফতারী পরোয়ানার আদেশ চেয়ে সুজন মিয়া বাদী হয়ে আদালতে একটি মামলা দায়ের  করেন। এছাড়াও কয়েক জনের নিকট থেকে আরও কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

উল্ল্যেখ, সংগীত বিভাগের তবলা সহকারি মশিউর রহমানের দুর্নীতির চিত্র বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়িয়ে এখন এলাকায় ছড়িয়ে পড়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম ধরে রাখতে এলাকাবাসীর পক্ষে প্রকৌশলী লুৎফুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বরাবরে একটি অভিযোগ করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এ বিষয়টির সাথে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় জড়িত নয়।এব্যাপারে  অভিযুক্ত মশিউর রহমান জানান,তার বিরুদ্ধে যে সকল অভিযোগ উঠেছে  তার অধিকাংশই মিথ্যা। তবে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সার্থে আর্থিক কিছু লেনদেন রয়েছে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

শিক্ষাঙ্গন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২২০ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই