তারিখ : ২০ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকার ওমর আলী মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় অন্তর্ভূক্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট

ভালুকার ওমর আলী মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় অন্তর্ভূক্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট
[ভালুকা ডট কম : ১৪ আগস্ট]
মুক্তিযুদ্ধে আফছার বাহিনীর একজন সক্রিয় যোদ্ধা আলহাজ্ব এস এম ওমর আলী। ভালুকা রনাঙ্গনে একাধিক যুদ্ধে অংশ নিয়ে দেশকে শত্রুমুক্ত করতে অবদান রাখেন তিনি। কিন্তু মুক্তিযোদ্ধা হিসাবে আজোও তাঁর নামটি তালিকাভূক্ত হয়নি। বিভিন্ন জন ও সংশিষ্ট দপ্তরে আবেদন নিবেদনের পর নিজের নামটি মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় অন্তর্ভূক্তির জন্য অবশেষে হাইকোর্টে রিট করেছেন তিনি।

আলহাজ্ব এস এম ওমর আলী ভালুকা উপজেলার ডাকাতিয়া ইউনিয়নের ডাকাতিয়া গ্রামের মরহুম আহাম্মেদ আলীর ছেলে। কথা হলে এস এম ওমর আলী জানান, ১৯৬৭ সন থেকে মুক্তিযুদ্ধ শুরুর সময় পর্যন্ত ইউনিয়ন, থানা ও জেলা পর্যায়ে ছাত্রলীগের বিভিন্ন দায়িত্বে থেকে স্বাধীনতা আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ন অবদান রাখেন তিনি। ওই সময় তৎকালীন সরকারের রোষানলে পড়ে একাধিক মামলার আসামীও হতে হয় তাকে। পরে, মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে ঢাকা উত্তর-ময়মনসিংহ দক্ষিন অঞ্চলে ভালুকার আফছার বাহিনীর একজন সক্রিয় যোদ্ধা হিসাবে জীবনবাজি রেখে একাধিক সম্মুখ যুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেন। দায়িত্ব পালন করেন আফছার বাহিনীর খন্ডকালীন কোয়াটার মাস্টার হিসাবেও। মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি হিসাবে মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক কর্ণেল আতাউল গণি ওসমানী ও আফছার বাহিনী প্রধান আফছার উদ্দিন আহাম্মেদ তাকে প্রতয়নপত্র প্রদান করেন। এছাড়া, প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা তালিকা প্রণয়ন জাতীয় কমিটি প্রনীত তালিকায় ৪২নম্বর ক্রমিকে তার নামটি অন্তভূক্ত রয়েছে। এরপরও, বিভিন্ন সময়ে প্রনীত মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় নিজের নামটি অন্তভূক্তির আবেদন করেও সফল হননি তিনি এবং সর্বশেষ অন লাইলেনও আবেদন রয়েছে তার। অতপর নিজের নামটি মুক্তিযোদ্ধা তালিকা/গেজেটে অন্তর্ভূক্তির জন্য তিনি হাইকোর্টে রিট করেন। রিট পিটিশন নম্বর ৭৮১১।

আলহাজ্ব এসএম ওমর আলী বলেন, শতভাগ নিশ্চয়তা দিয়ে বলছি,আমার মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে আমার নিজ এলাকা ইউনিয়ন বা উপজেলা পর্যায়ে কোন মুক্তিযোদ্ধা কোন সংশয় বা নেতিবাচক মনোভাব ব্যক্ত করলে আমার নাম মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় অর্ন্তভূক্তির আদৌ প্রয়োজন নেই।

ডাকাতিয়া ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মো. আবুল হোসেন পাঠান বলেন, আলহাজ্ব এস এম ওমর আলী একজন প্রথম সারির মুক্তিযোদ্ধা। তালিকাভূক্তির জন্য তার নাম মন্ত্রনালয়ে পাঠানো হয়েছে। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডর মফিজুর রহমান বলেন,আলহাজ্ব এস এম উমর আলী তৎ সময়ের একজন বলিষ্ঠ ছাত্রনেতা ছিলেন এবং তিনি একজন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা। তার নামটি তালিকাভূক্ত করণ জরুরী।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই