তারিখ : ১৫ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

রাজনৈতিক উত্তাপ বৃদ্ধি,সংকটে জাতীয় পার্টি

এরশাদের আসনে উপনির্বাচন
রাজনৈতিক উত্তাপ বৃদ্ধি,সংকটে জাতীয় পার্টি
[ভালুকা ডট কম : ০৭ সেপ্টেম্বর]
জাতীয় সংসদে বিরোধীদলের নেতা, সাবেক স্বৈরশাসক হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের মৃত্যুর কারণে শূন্য ঘোষিত রংপুর-৩ আসনে উপনির্বাচন নিয়ে রাজনীতিতে নতুন আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। আসন শূন্য হওয়ায় পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন করার সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা অনুসরণ করে নির্বাচন কমিশন ইতোমধ্যে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করেছে। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ভোট অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৫ অক্টোবর;  মনোনয়নপত্র জমার তারিখ ৯ সেপ্টেম্বর, বাছাই ১১ সেপ্টেম্বর এবং মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ১৬ সেপ্টেম্বর।

এ উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে রংপুর অঞ্চলে ইতোমধ্যেই রাজনৈতিক উত্তাপ বৃদ্ধি  পাচ্ছে। বিশেষকরে এ আসনটি দলের কব্জায় রাখতে সক্রিয় হয়েছে জাতীয় পার্টি এবং এ নিয়ে দলের মধ্যে টানাপোড়েন প্রকাশ্যে রূপ নিয়েছে। অপরদিকে, সরকারি দল আওয়ামী লীগও এ উপনির্বাচনে দলীয়ভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণা দিয়ে প্রার্থী বাছাইয়ে কাজ শুরু করেছে।

ওদিকে বিএনপির জোটের আগ্রহী প্রার্থীরা বৃহস্পতিবার রাজধানীর বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন  গত ডিসেম্বর নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীকারী ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক বাংলাদেশে পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান রিটা রহমান।

দলের নেতৃত্ব নিয়ে দ্বন্দ্বের প্রেক্ষিতে জাতীয় সংসদে এরশাদের পরিবর্তে কে হবেন বিরোদীদলীয় নেতা- তা নিয়ে স্পিকারের নিকট পাল্টাপাল্টি চিঠি পাঠিয়েছেন  এরশাদের বিধবা স্ত্রী বেগম রওশন এবং তার ছোট ভাই জিএম কাদের। এবার রংপুর-৩ আসনের উপনির্বাচনে দলীয় প্রার্থী মনোনয়ন নিয়ে পরস্পর বিপরীত অবস্থান নিয়েছে জাতীয় পার্টির (জাপা) বিবাদমান দুই গ্রুপ। দলটির চেয়ারম্যান দাবিবার রওশন এরশাদসহ তার অনুসারীরা দলীয় প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিতে যাচ্ছেন এরশাদপুত্র রাহগির আল মাহিরকে (সাদ এরশাদ)। তবে দলের আরেক চেয়ারম্যান দাবিদার জিএম কাদেরসহ তার অনুসারীরা দলের প্রার্থী হিসেবে চূড়ান্ত করেছেন রংপুর মহানগর জাপার সাধারণ সম্পাদক এসএম ইয়াছিরকে।

এরমধ্যে রওশন এরশাদের নেতৃত্ব প্রত্যাখ্যান করে গতকাল তার বিরুদ্ধে রংপুর শহরে ঝাড়ু মিছিল করেছে দলের রংপুর জেলা মহিলা পার্টি। এসময় তারা রওশন এরশাদকে দল থেকে বহিষ্কারেরও দাবি জানান। এ অবস্থায় পার্টির নেতা-কর্মীরা ছাড়াও চরম বিভ্রান্তির মধ্যে পড়েছেন তাদের সমর্থক গোষ্ঠী। রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শফিউল আলম গণমাধ্যমকে বলেছেন, জাতীয় পার্টির দ্বন্দ্ব মূলত পারিবারিক। নির্বাচনের আগে এটা না মিটলে সমূহ বিপর্যয়ের মধ্যে পড়বে।

তবে, রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, জাতীয় পার্টির ভবিষ্যৎ নির্ভর করছে আওয়ামী লীগের ওপর। এ প্রসঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক গোবিন্দ চক্রবর্তী বলেছেন, আওয়ামী লীগ তাদের নিজেদের স্বার্থেই চাইবে না  জাতীয় পার্টি ভেঙে যাক।

এদিকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সরকারের প্রভাবশালী মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জাতীয় পার্টির (জাপা) নেতৃত্বের টানাপড়েনে আওয়ামী লীগের কোনো মাথাব্যথা নেই। শুক্রবার দুপুরে রাজধানীতে দলের এক আলোচনা সভা শেষে ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেছেন, যিনি নিয়ম অনুযায়ী বিরোধীদলীয় নেতা হবেন, স্পিকার তাকেই নির্বাচিত করবেন। এখানে কারও প্রতি শেখ হাসিনা বা আওয়ামী লীগের কোনো পক্ষপাত নেই। আমরা কোনো পক্ষপাত করতে চাই না।

রংপুর-৩ আসনে দলীয় মনোনয়ন প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন,রংপুরের উপ নির্বাচনে এখন পর্যন্ত ১৬ জনের মনোনয়নপত্র পেয়েছি। আগ্রহী প্রার্থিতাদের মধ্যে বঙ্গবন্ধু পরিবারে কেউ নেই। আমাদের দলের নেতাকর্মীদের মধ্য থেকেই প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে। #





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

রাজনীতি বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২২০ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই