তারিখ : ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

গফরগাঁওয়ে ছাত্রীকে অন্তঃসত্বার অভিযোগে তালই গ্রেফতার

গফরগাঁওয়ে ছাত্রীকে অন্তঃসত্বার অভিযোগে তালই গ্রেফতার

[ভালুকা ডট কম : ০৭ নভেম্বর]
ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলায় মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ করে অস্তঃসত্বার অভিযোগে আতাউর রহমান(৩৭)নামে এক লম্পট তালইকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।এঘটনায় মাদ্রাসা ছাত্রীর বাবা রফিকুল ইসলাম বাদী বুধবার রাতে পাগলা থানায় মামলা দায়ের করেছেন।পাগলা থানার ওসি(তদন্ত) ফয়েজুর রহমান জানান,গ্রেফতাকৃত আসামী আতাউর রহমান দোষ স্বীকার করে আদালতে জবানবন্ধি দিয়েছেন।

মামলাসূত্রে জানাযায়,উপজেলার পাইথল ইউনিয়নের গোয়ালবর গ্রামের দরিদ্র রফিকুল ইসলামের মেয়ে গয়েশপুর দাখিল মাদ্রায় নবম শ্রেণীতে লেখাপাড়া করে।অভিযুক্ত আতাউর রহমানের মেয়ে রুমিও(১৮)মাদ্রাসায় একই শ্রেণীতে লেখাপড়ার করত।সে সুবাধে তাদের মধ্যে সখ্য গড়ে উঠে।পারিবারিক ভাবে পছন্দ করে রফিকুল ইসলামের ছেলে খায়রুল বাসারের সঙ্গে(অন্তঃসত্বার মাদ্রাসা ছাত্রীর ভাই)আতাউর রহমানের মেয়ে রুমির বিয়ে হয়।বিয়ের পর লম্পট তালই আতাউর রহমানের লোলুপ দৃষ্টি পড়ে ঔমাদ্রাসা ছাত্রীর উপর।মেয়েটি বেড়াতে গেলে গত ২৮মে রাতে বাড়ির পাশে একটি পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে লম্পট তালই তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।এতে মাদ্রাসা ছাত্রী অন্তঃসত্বা হয়ে পড়ে।

ধর্ষক আতাউর রহমানের বাড়ি লালমনিরহাট জেলার সদও থানায়্।সে গোয়লবর রুবেল মিয়ার পল্ট্রিখামারে কাজ করত।অপর দিকে দাইরগাঁও দাখিল মাদ্রাসার জেডিসি পরীক্ষার্থীকে বাড়ি থেকে অপহরণ করে নিয়ে ২৫ দিন আটকে রেখে গণধর্ষণকারীর মুল হোতা বিপ্লবকে গ্রেফতার করেছে পাগলা থানা পুলিশ।আত্নগোপনে থাকা বিপ্লবকে গোপন সংবাদে ভিত্তিতে বগুরা জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার গুজিয়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে পুলিশ।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২২৮ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই