তারিখ : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

ভালুকার করোনা আপডেট

২৯ জুলাই ২০২০, বুধবার
আক্রান্ত
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ২৮০ জন
সুস্থ
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ২১৯ জন
মৃত্যু
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ৩ জন

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকায় হিজড়াদের বেপোরোয়া উৎপাত

ভালুকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ হাইওয়েতে চলন্ত বাসে হিজড়াদের বেপোরোয়া উৎপাত
[ভালুকা ডট কম : ০২ আগস্ট]
ময়মনসিংহ হাইওয়েতে ভালুকা থেকে ত্রিশাল  যেতে ভরাডোবা বাসট্যান্ড হতে যাত্রিবাহী চলন্ত বাসে লাফিয়ে চড়ে প্রতিনিয়তই উৎপাত করে যাচ্ছে তৃতীয় লিঙ্গের হিজড়া সম্রদায়। গাড়ীর ড্রাইভারসহ হেলপার ও যাত্রীরা তাদের কাছে জিম্মি। তাদের বিরুদ্ধে কেউ কিছু বলতে গেলে হেনস্তার স্বীকার হতে হয়।

প্রতিদিনই ভালুকা-ত্রিশাল ও ময়মনসিংহ হাইওয়েতে সকাল বিকাল দলবেঁধে মহাসড়কের ভরাডোবা বাসট্যান্ড এলাকায় হিজড়ারা  ঘোরাফেরা করে। যখনই দূরপাল্লার কোন গাড়ী যানজটে পড়ে বা বাস-স্টপেজে দাড়ায় তখনই চলন্ত গাড়িতে লাফিয়ে চড়ে যাত্রী প্রতি কমপক্ষে দশটাকা চাঁদা তুলে থাকে কেউ দিতে অনিহা প্রকাশ করলে যাত্রীদের লাঞ্ছিত করে এবং টাকা দিতে বাধ্য করে।

ময়মনসিংহে প্রতিদিন যাতায়াত করেন এমন  কয়েকজন যাত্রীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, তৃতীয় লিঙ্গের মানুষগুলোকে আমরা মানবিক দৃষ্টিতে দেখলেও তারা আমাদের অমানবিক দৃষ্টিতে দেখে। তাদের ডিমান্ড পূরণ করতে না পারলেই করজোড়ে হাত-তালি দেয়, মাঝে মাঝে গায়ে হাত দেয়! পরিবার পরিজন নিয়ে যাত্রীবাহী বাসে চলাফেরা করাই এখন ইজ্জতের প্রশ্ন! ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ভালুকাতে হিজড়াদের উৎপাত বেড়ে গেছে সীমাহীন মাত্রায়।

ভালুকা বাসট্যান্ড হতে ময়মনসিংহ বাইপাস মোড় পর্যন্ত হিজড়া সম্প্রদায় কে এ দুই জায়গায় কমপক্ষে বিশ টাকা করে চাঁদা দিতে হয়। কখনও কখনও ৫০/১০০টাকাও চাঁদা দিতে হচ্ছে! প্রতিনিয়তই আমরা এ রুটে চলাচলা করা সাধারন মানষ এদের কাছে জিম্মি! আমাদের চলাফেরায় প্রতিদিনই সমস্যায় ভুগছি। আমরা এ সমস্যা থেকে পরিত্রাণ চাই।

বাসে প্রতিদিনই ভালুকা থেকে ময়মনসিংহে ব্যবসার কাজে যাতায়াত করা অন্য আরেক  যাত্রী আমাদের জানান, হিজড়াদের অবাধ বিচরন,শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাত দেওয়া টাকা না পেলে অকথ্য ভাষার গালিগালাজ ও অশুভ আচরনের জন্য এ রুটে পরিবার, সন্তান, আত্বীয়স্বজন নিয়ে যাতাযাত করে ইজ্জত হারাতে হচ্ছে! এ সম্প্রদায়ের মানুষগুলো দিনের বেলায় চাঁদাবাজি করে! রাতের বেলায় ছিনতাইসহ নানা অপকর্ম করে এটাই তাদের পেশা। তৃতীয় লিঙ্গের এ মানুষগুলো সকল সরকারি সুযোগ-সুুবিধা ভোগ করার পরেও তাদের অত্যাচার বেড়েই চলছে দেখার বা প্রতিবাদ করার মতো কেউ নেই।

এলাকাবাসি ও পরিবহন যাত্রীরাও এদের কাছে অসহায়! আইন-শৃখলা বাহিনীও এদের নিয়ন্ত্রন করতে পারছেনা। ফলে ভালুকা পৌরসদরে, পাড়ামহল্লায় ও আবাসিক এলাকায় হিজড়াদের আতংক ছড়িয়ে পড়েছে! এ সব হিজড়ারা চাদাবাঁজি, মাদকব্যবসা, পতিতাবৃত্তি সহ সমাজে নানা ধরনের অপরাধ করেছে প্রশাসনসহ সাধারন মানুষের নাকের ডগায়!

প্রতিবেদন লিখতে গিয়ে এদের ব্যপারে খোঁজখবর নিতে গিয়ে দেখা গেছে হিজড়াদের একটি দল ভাড়া বাসা নিয়ে দীর্ঘ বছর ধরে ভালুকার কলেজ মহল্লার ১ নং ওয়ার্ডে বসবাস করে নানা অপরাধ মূলক কাজ করে যাচ্ছেন! এদের পিছনে কিছু অসাধুমহল নিজের স্বার্থে এদের নিয়ন্ত্রন করছে!

সাধারন মানুষের দাবি অবিলম্বে ঢাকা-ময়মনসিংহ হাইওয়েতে চলন্ত পরিবহনে হিজড়া সম্প্রদায়ের অবাধে উৎপাত বন্ধ করে যাত্রীদের দুর্ভোগ লাঘবে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি এবং হিজড়ারা রাতের আধারে কি কি অপরাধ মূলক কাজ করে যাচ্ছেন কলেজ মহল্লার মতো আবাসিক এলাকায় বসবাস করে তা খতিয়ে দেখা জরুরি। ঈদের ছুটিতে ঘরমুখো মানুষ তাদের হয়রানির স্বীকার সবচেয়ে বেশি হচ্ছে। এর আশু-সমাধান জরুরি ভিত্তিতে প্রশাসনের নেয়া উচিত#




সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৯৪ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই