তারিখ : ২৩ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার

সংবাদ শিরোনাম


বিস্তারিত বিষয়

মদনে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর অভিযোগ

মদনে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর অভিযোগ,থানায় ডেকে নিস্পত্তির চেষ্টা
[ভালুকা ডট কম : ১৬ আগস্ট]
নেত্রকোনার মদনে পুরুষত্বহীন স্বামীর বিরুদ্ধে যৌতুকের অভিযোগ দায়ের করেছেন স্ত্রী কলি আক্তার। রোববার  থানায় ডেকে এনে নিস্পত্তি করার চেষ্টা করা হলেও স্ত্রী কলি আক্তার না মেনে  বাড়ি চলে যান এবং এ নিয়ে কোর্টে মামলা করবেন বলে সাংবাদিকদের জানান।  স্বামী পুরুষত্বহীন  তার পরিবার  এ কথা গোপন রেখে প্রতারনা করে তাদের বিয়ে দিয়েছে  বলে দাবি করেন তিনি।

রোববার সাংবাদিকদের সামনে থানায় প্রতারণার স্বীকার কলি আক্তার  বলেন, ২০২০ সালের মার্চ মাসের ১০ তারিখ বিদেশ থেকে এসে মদন পৌরসভার মনোহরপুর গ্রামের সুরুজ্জামানের ছেলে  এরশাদের সাথে পারিবারিক সিদ্ধান্তনুযায়ী আামাদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামী এরশাদ আমাকে কখনোই শারীরিক সুখ দিতে পারে নি। এ বিষয়টি স্বামীর পরিবার ও আমার পরিবারকে জানালে বিগত এক মাস ধরে একাধিক সালিশ বৈঠক চলতে থাকে। এতে কোনো রকম সুরাহা না হওয়ায় আমি মদন থানার পুলিশের স্মরনাপন্ন হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করি। অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিষয়টি মীমাংসার জন্য রবিবার মদন থানা প্রাঙ্গনে সালিশ বৈঠকে তারা সিদ্ধান্ত করেন, আমার পরিবারের দেয়া সকল আসবাবপত্র এবং তারা আমাকে ৫০ হাজার টাকা দিবে। বিয়ের সময় তারা আমাকে  কিছু স্বর্নালঙ্কার দিয়েছিল তা ফেরৎ দিয়ে বিবাহ বিচ্ছেদের চাপ সৃষ্টি করে। তাদের দেয়া  সিন্ধান্ত আমি ও আমার পরিবার মেনে নেয়নি। আমি এর জন্য কোর্টে প্রয়োজন বোধে মামলা দায়ের করব। না হয় কাবিন নামা অনুযায়ী আমার পাওনা পরিশোধ করতে হবে।  আমি ও আমার পরিবার  প্রতারনার স্বীকার। আমার মতো কোন মেয়ে যেন এ প্রতারনার স্বীকার না হয়। আমি এর বিচার চাই।

এ বিষয়ে স্বামী এরশাদ মিয়া জানান, কোনো ভাবে জামেলা শেষ হোক তাতেই আমি বাঁচি। অভিযোগ তদন্তকারী এস আই দেবাশীষ দত্ত জানান, স্বামীর বিরুদ্বে স্ত্রীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে রবিবার স্বামী-স্ত্রীসহ তাদের পরিবারকে ডেকে উভয়ের পাওনা পরিশোধ করার জন্য বলা হয়েছে। এর সাথে মেয়েটি কে ৫০ টাকা দিবে বলে ছেলে পক্ষ স্বীকার করেছে। তবে থানা থেকে বের হয়ে বিষয়টি কি হয়েছে তা আমার জানা নেই।  আমি শোনেছি তারা নাকি এ সিন্ধান্ত মেনে নেয়নি।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

নারী ও শিশু বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৯৫ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই