তারিখ : ২১ অক্টোবর ২০২০, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম


বিস্তারিত বিষয়

শ্রীপুরে ভেতরে পিন রেখেই অপারেশন সম্পন্ন করলেন চিকিৎসক

শ্রীপুরে ভেতরে পিন রেখেই অপারেশন সম্পন্ন করলেন চিকিৎসক
[ভালুকা ডট কম : ২২ সেপ্টেম্বর]
গাজীপুরের শ্রীপুরে পায়ে ব্যাথা নিয়ে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে গিয়ে অপচিকিৎসা শিকার হয়েছেন হাফেজ ইদ্রিস আলী নামের একটি মসজিদের ইমাম। এঘটনায় বিচার চেয়ে তানিয়া হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের চিকিৎসক শামীম আক্তার ও হাসপাতাল মালিক খোকন মিয়ার বিরুদ্ধে সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী হাফেজ ইদ্রিস আলী।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ৮আগষ্ট হাফেজ ইদ্রিস আলী ডান পায়ে ব্যাথা নিয়ে উপজেলার নয়নপুর এলাকায় তানিয়া মেডিকেল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে যান। সেখানে বিভিন্ন পরীক্ষা পর হাসপাতালের চিকিৎসক মো: শামীম আক্তার পায়ে নিডেল (পিন) ঢুকেছে এবং দ্রুত অস্ত্রোপাচারের মাধ্যমে তা অপসারণ করতে হবে বলে জানান। চিকিৎসকের সিদ্ধান্ত মোতাবেক ওইদিন রাতেই অস্ত্রোপাচার করান। পরবর্তীতে পায়ে ব্যাথা বাড়লে আবারও তিনি ওই হাসপাতালে গেলে চিকিৎসক কিছু ঔষুধ লিখে দেন। পরবর্তীতে অবস্থা আরও খারাপ হলে তিনি চিকিৎসকের মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজসহ বিভিন্ন ধরনের হুমকি দেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করেন। পরে ঢাকার জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনবার্সন প্রতিষ্টানে (নিটোর) পরিচালক অধ্যাপক ডা: আব্দুর গণি মোল্লা বিভিন্ন পরীক্ষার নীরিক্ষার পর জানান পায়ের ভেতর নিডেল (পিন) রয়েছে, পূর্বের অস্ত্রোপাচারে নিডেল অপসারণ করতে পারেননি।

এদিকে ভুক্তভোগী হাফেজ ইদ্রিস আলীর পা ফুলে ও ইনফেকশন হওয়ায় তিনি এখন হাঁটতে পারছেন না, বিছানায় শুয়ে বসে এখন তার দিন কাটছে। তিনি জানান, পায়ে ব্যাথা নিয়ে চিকিৎসকের কাছে গেলে তিনি অপচিকিৎসার শিকার হয়ে এখন পা হারাতে বসেছেন। ঢাকার চিকিৎসক জানিয়েছেন, তাঁর উন্নত চিকিৎসা দরকার। এজন্য যে পরিমান টাকা দরকার তাঁর যোগান তিনি দিতে পারবেন না। তিনি চিকিৎসকসহ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিচার চেয়েছেন।

এবিষয়ে চিকিৎসক শামীম আক্তার জানান, পায়ে ব্যাথা থাকায় একটি এক্সরে করে তার পায়ে দুটি নিডেলের (পিন) উপস্থিতি পাওয়া যায়। পরে তা অস্ত্রোপাচারের মাধ্যমে অপসারণ করা হয়। পরে আর তিনি যোগাযোগ করেননি।শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা প্রণয় ভূষণ দাস জানান, অভিযোগটি আমলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকার বাইরে বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৯৫ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই