তারিখ : ০২ ডিসেম্বর ২০২০, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

গৌরীপুরে হাজারো ভক্তকূলকে কাঁদিয়ে দূর্গা দেবীর বিদায়

গৌরীপুরে হাজারো ভক্তকূলকে কাঁদিয়ে দূর্গা দেবীর বিদায়
[ভালুকা ডট কম : ২৬ অক্টোবর]
বিজয়া দশমীর পূজার মধ্যদিয়ে (২৬ অক্টোবর) সোমবার শেষ হয়েছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। হাজারো ভক্তকে কাঁদিয়ে মা দূর্গা দেবী এক বছররের জন্য বিদায় নিয়েছেন মর্ত্য থেকে। এবার বিধি নিষেধ থাকায় বিগত বছরের মতো বিজয়ার শোভাযাত্রা হয়নি।

সকাল ৯টা ৫৭ মিনিট থেকে দশমী বিহিত পূজার লগ্ন শুরু হয়। পূজা শেষে দর্পণ বিসর্জনের মধ্যদিয়ে পূজার ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতা শেষ করা হয়। পরে স্বামীদের কল্যানে দেবীর চরণে ছোঁয়া সিঁদুর দিয়ে বধুদের সিঁদুর খেলা শেষে ময়মনসিংহের গৌরীপুরে হাজারো ভক্তদের কাঁদিয়ে ৫৭টি মন্দিরের দূর্গা দেবীর প্রতিমা বিসর্জন দেয়া হয়েছে। পৌর সভার ১৭টি মন্দিরের দূর্গা প্রতিমা স্থানীয় আরকে সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ঐতিহাসিক অনন্ত সাগর দীঘিতে বিসর্জন দেয়া হয়। অন্যান্য ১০টি  ইউনিয়নের প্রতিমা নিকটবর্তী বিভিন্ন জলাধারে বিসর্জন দেয়া হয়েছে।

চন্ডীপাঠ, বোধন এবং দেবীর অধিবাসের মধ্যদিয়ে গত বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুরু হয় বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ব বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। এবার দেবী এসেছেন দোলায়, গিয়েছেন গজে চড়ে। এর মধ্যদিয়ে দেবী মর্ত্য ছেড়ে স্বর্গে ফিরে গেছেন। এক্ষেত্রে যদিও করোনা মহামারির সংক্রমণ এড়াতে এ বছর ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান সংক্ষিপ্ত করা হয়।

উৎসব সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো পরিহার করে সাত্বিক পূজায় সীমাবদ্ধ রাখতে হবে বিধায় এবারের দুর্গোৎসবকে শুধু ‘দুর্গাপূজা’ হিসেবে অভিহিত করে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ। বেশকিছু বিধিনিষেধের কারনে মন্ডপে দর্শনার্থীদের উপস্থিতি সীমিত করা ও সন্ধ্যায় আরতির পরই বন্ধ করে দেয়া হয় পূজামন্ডপ। ছিল না সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ধুনুচি নাচের প্রতিযোগিতা। জনসমাগমের কারণে স্বাস্থ্যবিধি যাতে ভঙ্গ না হয় সেদিকে খেয়াল রেখেই প্রসাদ বিতরণ ও বিজয়া দশমীর শোভাযাত্রা নিষিদ্ধ করা হয়। পূজার সময় বেশিরভাগ ভক্ত এবার দেবীর পায়ে অঞ্জলি দিতেও মন্ডপে আসেনি। পুরাণ মতে, মহিষাসুরের সঙ্গে ৯ দিন ৯ রাত যুদ্ধের পর দশম দিনে জয়ী হন দেবী দুর্গা। এ জন্যই বিজয়া দশমী। সেই লোকাচার বাংলার ঘরে ঘরে সিঁদুর খেলা হিসেবে পরিণত হয়েছে। সিঁদুর খেলার পাশাপাশি চলে কোলাকুলি। তবে করোনা মহামারির কারণে এবার কোলাকুলি করা হয়নি।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ধর্ম বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৯৮ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই