তারিখ : ১৬ মে ২০২১, রবিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নওগাঁয় স্বামী পছন্দ না হওয়ায় নববধূর আত্মহত্যা

নওগাঁয় স্বামী পছন্দ না হওয়ায় নববধূর আত্মহত্যা
[ভালুকা ডট কম : ১১ এপ্রিল]
নওগাঁর রাণীনগরে বিয়ের এক মাসের মাথায় তপতি হালদার (১৯) নামে এক গৃহবধূ রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তার স্বজনরা বলছেন স্বামী-স্ত্রী বনিবনা ও স্বামীকে পছন্দ না হওয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করেছে। শনিবার দুপুরে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে।

জানা গেছে, উপজেলার কাশিমপুর ইউনিয়নের চক-কুজাইল হালদার পাড়া গ্রামের দেবনাথ হালদারের মেয়ে তপতি হালদারের সাথে এক মাস আগে নাটোর জেলার লালপুর উপজেলার চন্দ্রপুর গ্রামের যুগলচন্দ্র হালদারের ছেলে লিটন হালদারের সাথে পারিবারিক আয়োজনে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে স্বামী-স্ত্রীর সাথে বনি-বনা না হওয়ায় কয়েক দফা লিটনের বাড়িতে পারিবারিক বৈঠকও হয়েছে। এতে কোন সুরাহা না হলে মেয়ের বাবা দেবনাথ হালদার শুক্রবার বিকেলে জামাই মেয়েকে রাণীনগরে তার বাড়িতে নিয়ে আসে। ওই রাতেই তপতির বাবার বাড়িতে মেয়ে-জামাইয়ের বিষয় নিয়ে প্রায় রাতভর বৈঠক চলে। তপতিকে তার স্বামীর সাথে শ্বশুর বাড়িতে যেতে বলে। বিষয়টি তপতি মেনে না নিয়ে ক্ষোভে কষ্টে শনিবার সবার অজান্তে ঘরের তীরের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে আত্নহত্যার চেষ্টা করে। এসময় তার মা তুলসী রাণী মেয়ের গলার পেঁচানো ওড়না খুলে আহত অবস্থায় রাণীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।

রাণীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিন আকন্দ জানান, খবর পেয়ে আমরা লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছি। এব্যাপারে রাণীনগর থানায় শনিবার বিকেলে একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

জীবন যাত্রা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩১০ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই