তারিখ : ০৩ আগস্ট ২০২১, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

বীর মুক্তিযোদ্ধা মিলন এমপি’র ইন্তেকাল

রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন
বীর মুক্তিযোদ্ধা মিলন এমপি’র ইন্তেকাল,রাজনৈতিক অঙ্গনে শোকের ছাঁয়া
[ভালুকা ডট কম : ১৮ এপ্রিল]
৬৪ সিরাজগঞ্জ-৩ আসনের (রায়গঞ্জ-তাড়াশ) সাবেক সংসদ সদস্য ও তাড়াশ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ম ম আমজাদ হোসেন মিলন (৭২) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি....রাজিউন)।

রবিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর খাজা ইউনুছ আলী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউ’তে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এমপি মিলন ফুসফুসে টিউমার জনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে ১০ এপ্রিল ঐ হাসপাতালে ভর্তি হন। অবস্থার অবনতি হলে তাকে নীবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়। তার মৃত্যুতে স্থানীয় রাজনৈতিক অঙ্গনসহ পুরো এলাকায়  শোকের ছায়া নেমে আসে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা ম ম আমজাদ হোসেন মিলন স্বাধীনতা যুদ্ধের পূর্বে তাড়াশ থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ভারতে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে ৭নং সেক্টরের অধীন পলাশডঙ্গা যুব শিবিরে সহ-সর্বাধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন।

স্বাধীনতাত্তোর কালে তাড়াশ উপজেলার ৪নং মাগুড়াবিনোদ ইউনিয়ন পরিষদে দুইবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। পরবর্তীকালে সিরাজগঞ্জ সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ ব্যাংকের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তখন থেকে সুদীর্ঘ ১৮ বছর তাড়াশ থানা আওয়ামীলীগের পর্যায়ক্রমে সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৯০ সালে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে বিপুল ভোটে তাড়াশ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ২০০৯ সালে পুনরায় উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে রাজশাহী বিভাগীয় উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি পর্যাক্রমে সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক,এবং ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। মিলন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য হিসেবে ও বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ তাড়াশ উপজেলা কমান্ডের কমান্ডার হিসেবে তিন বার  দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৪ সালে সিরাজগঞ্জ-৩ আসনের উপনির্বাচনে জাতীয় সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। এরপর তিনি ভূমি মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য নির্বাচিত হন। রবিবার বাদ আছর বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মিলন এমপিকে তাড়াশ সদর ঈদগাহ ময়দানে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। সেখানে প্রথম জানাযা নামাজ আদায়ের পর তার গ্রামে বাড়ি মাগুড়াবিনোদ নিয়ে স্থানীয় স্কুল ময়দানে দ্বিতীয়বার জানাযা নামাজ শেষে সন্ধ্যায় গ্রামের সামাজিক কবরস্থানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে তাকে দাফন করা হয়।

স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. মো. আবদুল আজিজ, সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগ ও রায়গঞ্জ-তাড়াশ উপজেলা আ’লীগ নেতৃবৃন্দ ও উভয় কমান্ডের মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নেতৃবন্দ তাঁর বিদেহীর আত্মার মাগফেরাত কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

শোক সংবাদ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩১৪ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই