তারিখ : ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

রাণীনগরে স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গ করে আ.লীগ নেতার শোভাযাত্রা

রাণীনগরে স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গ করে আওয়ামী নেতার বর্ণাঢ্য নির্বাচনী শোভাযাত্রা
[ভালুকা ডট কম : ২৬ সপ্টেম্বের]
করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গ করে নওগাঁর রাণীনগরে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামেনে রেখে এক বিশাল নির্বাচনী শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলার গোনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী আব্দুল মজিদ শাহ্ নিজেই করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্য বিধি (মাস্ক না পড়েই) না মেনেই শত শত মানুষকে নিয়ে মোটর সাইকেল শোডাউন করেছেন।

জানা গেছে, শনিবার বেতগাড়ী বাজার থেকে কয়েক শত মোটর সাইকেল, চার্জার ভ্যানসহ এলাকার দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষদের অংশ গ্রহনে মোটর সাইকেল শোডাউন বের করেন আব্দুল মজিদ শাহ্। এসময় নেতা আব্দুল মজিদ শাহ নিজেই মাস্কবিহীন ছিলেন। এছাড়া শোডাউনে অংশ নেয়া অধিকাংশ মানুষই ছিলেন মাস্কবিহীন। অথচ আওয়ামী নেতা হাজার হাজার টাকা খরচ করে নির্বাচনী প্রচার কাজ করলেও কোন মানুষকেই করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব না মানাতে পারলেও অবশ্যই মাস্ক পড়ার বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করতে পারেন নাই। যেখানে সরকার এই মহামারি থেকে সাধারন মানুষকে বাঁচাতে হাজার হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করছেন, বাহিরে বের হলেই মাস্ক পড়ার বিষয়ে কঠোর নির্দেশনা প্রদান করেছেন আর সেখানে একজন আওয়ামী নেতা সাধারন মানুষদের স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়টি নিশ্চিত না করে এবং নিজেই স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গ করে ও মাস্ক না পড়েই শত শত মানুষকে নিয়ে নির্বাচনী শোডাউন করেছেন। বিষয়টি খুবই দু:খ্যজনক বলে মনে করছেন এলাকার সচেতন মহল। এই ঘটনায় বর্তমানে এলাকায় নানা সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।

সচেতন মহলের দাবী এই করোনা ভাইরাস থেকে মানুষকে বাঁচানোর লক্ষ্যে ও মাস্ক পড়ার বিষয়ে উদ্বুদ্ধ করতে সরকারসহ সমাজের বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিরা বিনামূল্যে মাস্ক বিতরন করছেন। আর একজন আওয়ামী নেতা হয়ে আব্দুল মজিদ শাহ সরকারের নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করে মাস্ক না পড়েই শত শত মানুষকে নিয়ে নির্বাচনী প্রচার কাজ করছেন এটি শোভনীয় নয়। অন্তত আব্দুল মজিদ শাহ তার শোডাউনে অংশ নেওয়া মানুষগুলো মাস্ক পড়ার বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারতেন। তাহলে একদিকে ওই মানুষরা যেমন স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে সচেতন হতো অপরদিকে প্রচার কাজও হতো। আমাদের সবাইকে আরো বেশি সচেতন হতে হবে।

মনোনয়ন প্রত্যাশী আব্দুল মজিদ শাহ্ বলেন অবশ্যই সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। আমি শোডাউনের জন্য মাস্ক সবাইকে দিয়ে পড়ার নির্দেশনা দিয়েছিলাম। কিন্তু প্রচন্ড গরমের কারণে হয়তো বা অনেকেই পড়েননি। আর গনমাধ্যমকর্মীদের নির্দেশনায় আমি মাস্ক পড়িনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে অবশ্যই মাস্ক পড়ার বিষয়টি সবাইকে নিশ্চিত করতে হবে। কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি না মেনে এমন জনসমাগম সৃষ্টির বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে আগামীতে এই বিষয়গুলোতে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

রাজনীতি বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩২৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই