তারিখ : ২৪ জানুয়ারী ২০২২, সোমবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

শ্রীপুরে মামলা প্রত্যাহারের হুমকি,আদালতে মুচলেকা

শ্রীপুরে মামলা প্রত্যাহারের হুমকি, আদালতে মুচলেকা  
[ভালুকা ডট কম : ২৭ নভেম্বর]
গাজীপুরের শ্রীপুরে পৈত্রিক ও ক্রয়সূত্রে জমির মালিকাধীন জমিতে স্থানীয় একটি চক্রের সহায়তায় জোর পূর্বক দখল করে সীমানা পিলার বেড়া দিয়ে দখলের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় আব্দুল বাছের আলীর বিরুদ্ধে। আব্দুল বাছের আলীর নেতৃত্বে ওই নিজ মাওনা এলাকায় জমিদখলের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সেনাবাহিনীর (অবঃ) সার্জেন্ট মোতাহের হোসেন বাদী হয়ে ৪জনকে অভিযুক্ত করে শ্রীপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

অভিযুক্তরা হলেন,নিজ মাওনা গ্রামের আব্দুল বাছের (৫৮),ফেরদৌস (২৫),মজিবুর রহমান (৪০) ও আব্দুল ছাত্তার (৪০)সহ অজ্ঞাতনামা ৩/৪জন। মামলা করার পর থেকে বাছেদ আলী ও তার সহযোগিরা জামিনে মুক্তি পেয়ে মামলা প্রত্যাহার করার জন্য বাদী কে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে।

মামলা সূত্রে ও মোতাহার হোসেন জানান,গাজীপুর মৌজার নিজ মাওনা গ্রামে ৭০ শতাংশ জমি পৈত্রিক ও ক্রয়সূত্রে ৪৬ বছর ধরে মালিক হয়ে ভোগ দখলে থাকা অবস্থায় আব্দুল বাছেরগং জমি জোরপূর্বক দখল করে নেওয়ার চেষ্টা করে এবং বাঁধা দেওয়ায় মারধর করে। পরে আমি বাদী হয়ে  শ্রীপুর থানায় ৪ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করি। বর্তমানে মামলাটি আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। তাছাড়া আসামিরা জামিনে থাকায় স্বেচ্ছায় মামলা তুলে নিতে আমি ও আমার পরিবারকে হুমকি প্রদান করছে। আমরা এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছি। জমিতে থাকা বিভিন্ন প্রকার গাছপালা কেটে নিলে তাদের বিরুদ্ধে গাজীপুর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আরেকটি ১০৭ ধারা  মামলা দায়ের করি। পরে আমার প্রতিপক্ষ বিবাদীগন আদালতে উপস্থিত হইয়া ঘটনাসহ হুমকি-ধামকি দিবে না মর্মে মুচলেকা দিয়ে আসে। কিন্তু পুনরায় বাড়িতে এসে জমি দখলের উদ্দেশ্যে ওই জমিতে নতুন করে টয়লেট স্থাপনের সরঞ্জাম নিয়ে কাজ শুরু করে। পরে অন্যায় কাজের বাঁধা দিলে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়। পরে এ ঘটনায় থানায় আরেকটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করি।

অভিযুক্ত আব্দুল বাছের আলীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জমি দখলেরর বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, জমিটি আমার নিজ নামে আরএস রের্কড অর্ন্তভূক্ত হয়েছে। শ্রীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন বলেন, এ সংক্রান্ত বিষয়ে থানায় একটি মামলা হয়েছিল যা বর্তমান আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। পরে আরেকটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।#




সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৭৮৪ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই