তারিখ : ১৭ আগস্ট ২০২২, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নান্দাইলে ৮ দিন পর আহত কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

নান্দাইলে ৮ দিন পর আহত কলেজ ছাত্রের মৃত্যু,গ্রেফতার ১
[ভালুকা ডট কম : ২৬ জুন]
ময়মনসিংহের নান্দাইলের আশরাফুল ইসলাম (২০) নামে এক কলেজ ছাত্র শনিবার (২৫ শে জুন) দিবাগত রাত দেড়টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করে। এ ঘটনায় রুবেল মিয়া নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে নান্দাইল মডেল থানা পুলিশ।

আশরাফুল ইসলাম নান্দাইল উপজেলার গাংগাইল ইউনিয়নের অরণ্যপাশা গ্রামের মনজু মিয়ার পুত্র। গত শনিবার (১৮ই জুন) বাড়ির সামনে মাছ ধরার ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাচাতো ভাইয়ের দায়ের কুপে মাথায় ও মুখে গুরুতর আহত হয়। পরে তাকে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় ঢাকায় পাঠানো হলে, সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৮ দিন পর তার মৃত্যু ঘটে।

জানা গেছে, আশরাফুলের চাচা নবী মিয়ার ছেলে সুজন (৩৫) ও তার পরিবারের লোকজন একটি তুচ্ছ ঘটনার জেরে তাঁর উপর হামলা চালায়। এতে আহত আশরাফুল ইসলাম ও তার ছোট ভাই মাসুদও গুরুতর আহত হয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেলে চিকিৎসাধীন ছিলেন। জানাগেছে, ঘটনার দিন বিকেলে বাড়ির কাছের জলাশয়ে মাছ ধরা নিয়ে আশরাফুলের ছোট ভাই মাসুদের সাথে হাতাহাতি হয় নবী মিয়ার ছোট ছেলে জুনায়েদের সাথে। তা নিয়ে উভয় পক্ষের বাগবিত-ার এক পর্যায়ে নবী মিয়ার ছেলেরা লাঠিসোঁটা ও ঘরে থাকা দা নিয়ে হামলা চালায় আশরাফুলদের উপর। তখন নবী মিয়ার ছেলে সুজন তার হাতে থাকা দা দিয়ে আশরাফুলের মাথায় উপর্যুপরি কোপায় ও শাবল দিয়ে তার দাতগুলো ভেঙ্গে দেয়।

অপরদিকে ঘটনাস্থলে থাকা নবী মিয়ার ছেলে রুবেল (২৮) তার হাতের দা দিয়ে মাসুদকে কোপায়। রক্তাক্ত অবস্থায় স্থানীয়রা আশরাফুল ও মাসুদকে উদ্ধার করে প্রথমে নান্দাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে মুমূর্ষু অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য আশরাফুলকে স্থানান্তর করা হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। এরপর অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে মাথা থেকে আশরাফুলের খুলি আলাদা করে ব্যান্ডেজ করা হয়। আলাদা করা খুলি সংরক্ষণ করা হয় সাভারের একটি ল্যাবরেটরিতে। তার মাথায় ৪৪টার মত সেলাই দেওয়া হয়েছিল।  ২৩শে জুন আশরাফুলের পিতা মনজু মিয়া বাদী হয়ে নান্দাইল মডেল থানা একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করে।

নান্দাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান আকন্দ জানান, এ ঘটনায় গত ২৩ জুন ৭ জনকে আসামি করে থানায় মামলা হয়েছে। তার মধ্যে রুবেল মিয়া নামে এক আসামি পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় আশরাফুল মারা যাওয়ায় এখন ওই মামলাটিই হত্যা মামলায় রুপান্তরিত হবে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫১৩১ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই