তারিখ : ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

বেনাপোল মহাসড়কে পৃথক দুর্ঘটনায় নিহত ৫জন

যশোর-বেনাপোল মহাসড়কে ৩দিনের ব্যবধানে পৃথক দুর্ঘটনায় ছাত্রসহ নিহত হয়েছেন ৫জন, আহত ২০
[ভালুকা ডট কম : ০৮ অক্টোবর]
যশোর-বেনাপোল মহাসড়কে থামানো যাচ্ছেনা দুর্ঘটনার। একের পর এক ঘটেই চলেছে দুর্ঘটনা । গত ৩দিনের ব্যবধানে এই সড়কে পৃথক ৩টি সড়কদুর্ঘটনায় ৩ ছাত্র সহ নিহত হয়েছে ৫জন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩০জন।

শনিবার সকালে মহাসড়কের ঝিকরগাছার হাজিরালী বাখিখোলা নামক স্থানে বাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন। ঝিকরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেয়া আহতরা হলেন সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার চন্দনপুর ইউনিয়নের দারকী গ্রামের মতিয়ার রহমানের মেয়ে সুরভী খাতুন (২৩), হাফিজুর রহমানের ছেলে ফারুক হোসেন (৩০), মাগুরা গ্রামের কওছার আলীর ছেলে আমিনুর রহমান (৪৫), হাবিবুর রহমানের ছেলে সাবিক (১৮),আহাদ সরদারের ছেলে রোকনুজ্জামান (৪০), ঝাউডাঙ্গার অহিদুল ইসলামের মেয়ে তাবাচ্ছুম (১৯), শার্শা উপজেলার উলাশী গ্রামের আব্দুল মালেকের স্ত্রী
আয়েশা বেগম (৫০), ঝিকরগাছা উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের কবির হোসেনের স্ত্রী সাবিনা আক্তার রুনা (৩৫)।

আহতরা জানান, সাতক্ষীরা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী সুন্দরবন পরিবহণ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা বেনাপোলগামী একটি ট্রাকের মুখোমুখী সংঘর্ষে এই দুর্ঘটনা ঘটে।প্রত্যক্ষদর্শীরা ও পুলিশ জানান, বেপরোয়া গতি, ওভারটেকিং ও চালকের অদক্ষতায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। এর আগে শুক্রবার রাত ৯টার দিকে মোটরসাইকেলে থাকা নতুনহাট পাবলিক কলেজের তিন শিক্ষার্থী ঢাকাগামী অজ্ঞাতনামা একটি কাভার্ড ভ্যানের চাকায় পিষ্টহয়ে নতুনহাট ইটভাটার সামনে মর্মান্তিকভাবে নিহত হন। তার আগে গত বৃহস্পতিবার বিকালে ঝিকরগাছার পারবাজার মৎস্য খামারের সামনে নছিমন চালক জয়নাল আবেদীন ও সন্ধ্যায় কীর্তিপুরে আব্দুল কাদের নামের এক দুবাই প্রবাসী নিহত হয়।

এদিকে সড়ক নিরাপত্তায় নিয়োজিত নাভারন হাইওয়ে থানা পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙ্গুল তুলেছে স্থানীয়রা।স্থানীয়দের মতে, যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের ব্যস্ততম এলাকায় মহাসড়কের গা ঘেষে যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং, মালামাল লোড-আনলোড, অবৈধ দোকান ও বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠা, যাত্রী পরিবহন নির্দিষ্ট স্থানের পরিবর্তে মহাসড়কের উপর যাত্রী উঠানামা করানো ইত্যাদি দুঘর্টনার বহুলাংশের কারণ।

অভিযোগ রয়েছে, এসব অনৈতিক সুবিধা দিয়ে নাভারন হাইওয়ে থানা পুলিশ অলিখিত মাসোহারা আদায় করে থাকেন।এ ব্যাপারে জানতে চাইলে নাভারন হাইওয়ে থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন,তিনি নতুন এসেছেন এসব ব্যাপারে তিনি এখনো অবগত নন।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

জীবন যাত্রা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৬৫৭৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই