তারিখ : ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নান্দাইলে প্রাথমিকে শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত

নান্দাইলে প্রাথমিকে শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত
[ভালুকা ডট কম : ১০ ডিসেম্বর]
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শতাধিক জনবল সংকটের কারনে শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। এতে করে প্রাথমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা ব্যাবস্থা পিছিয়ে পড়ছে। শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড। আর প্রাথমিক শিক্ষাই তার মূল ভিত্তি। প্রাথমিক স্তরের সু-শিক্ষাই মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের সফল সিঁড়ি। প্রাথমিক শিক্ষা স্তরে শিক্ষা কার্যক্রমকে সচল করা সহ শিক্ষার্থীদের মূল ভিত্তিকে শক্তিশালী করতে প্রাথমিক স্তরে পুর্ণাঙ্গ জনবল থাকা অত্যাবশকীয়।

নান্দাইল উপজেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১৪০ জনবল সংকট রয়েছে। ১৭৮টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালর্য়ে মধ্যে ২৯টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক নেই। অর্থাৎ ২৯ জন প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। পাশাপাশি ৪৪ জন সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য। এছাড়া প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৬২ জন সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। অপরদিকে ১৭৮টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় দেখাশুনার দায়িত্বে ৮টি এটিও (সহকারী শিক্ষা অফিসার) পদের মধ্যে ৪টি পদ শূন্য। প্রাথমিক শিক্ষা পর্যায়ে প্রায় দেড় শতাধিক জনবল সংকটের কারনে ঝিমিয়ে পড়ছে শিক্ষা কার্যক্রম। শুধু তাই নয়, ১৭৮টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেই স্কুল পরিচালনা কমিটি। একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার মান উন্নয়ন ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন সহ প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কার্যক্রমের জন্য কমিটি গঠন করা অত্যাবশ্যকীয়। তাই শিক্ষার মান উন্নয়ন বেগমানের জন্য প্রতিষ্ঠানগুলোতে কমিটি গঠনের তদারকি জোরদার জরুরী। পাশাপাশি শিক্ষাদানে যথেষ্ট জনবল রাখারও প্রয়োজন রয়েছে। করোনাকালীনর সময়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষার গতিধারা সহ সকল কার্যক্রম পিছিয়ে পড়েছিল। ফলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে পরিচালনা কমিটির মেয়াদ উর্ত্তীর্ণ হয়ে পড়ে।

বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক সমিতি নান্দাইল উপজেলা শাখার সভাপতি ও নান্দাইল রোড স: প্রা: বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো আমিনুল ইসলাম বলেন, জনবল সংকট থাকার কারনে শিক্ষাদান সহ প্রতিষ্ঠানগুলোর উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালনায় ব্যাঘাত ঘটছে। জনবল সংকটের নি:সরনে আমরা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী সহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। সংকট দূরীকরন হলে শিক্ষাদান কার্যক্রমের গতিধারা আরও বৃদ্ধি পাবে। এছাড়া ইতিমধ্যে বিভিন্ন স্কুলে এডহক কমিটি গঠন করা হয়েছে। আশা করছি নতুন বছরের জানুয়ারীতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো নির্বাচন পরিচালনা কমিটি জোরদার হবে।

এ বিষয়ে নান্দাইল উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা  মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী জানান, জনবল সংকট সহ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি গঠনের কার্যক্রম চলছে। ইতিমধ্যে ৭০টি বিদ্যালয়ে এডহক কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী নতুন বছর এলেই বিদ্যালয়গুলোতে পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেওয়া হবে। পাশাপাশি জনবল সংকটের ব্যাপারটি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। খুবই শীঘ্রই শূন্য পদে নিয়োগ প্রদান করবে কর্তৃপক্ষ। #



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অনুসন্ধানী প্রতিবেদন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৬৫৭৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই