তারিখ : ১৬ জুলাই ২০২৪, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নওগাঁয় ধর্ষণের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন

নওগাঁয় গৃহবধূকে ধর্ষণের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন
[ভালুকা ডট কম : ৩১ আগষ্ট]
নওগাঁর পোরশায় এক গৃহবধূকে ধর্ষণের দায়ে আব্দুল হালিম (৩৬) নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১লাখ জরিমানা ও অনাদায়ে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩১ আগস্ট) নওগাঁর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালত-২ এর বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মেহেদী হাসান তালুকদার এই রায় দেন। এসময় জরিমানার টাকা ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূকে দেওয়ার নির্দেশ দেন বিচারক। মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মকবুল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

দন্ডপ্রাপ্ত ওই যুবক চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার ঘাটনগর গ্রামের আবু বক্কার ওরফে ভোগার ছেলে। রায় ঘোষণার সময় আসামী উপস্থিত না থাকায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ারা জারি করা হয়।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০২০সালের ৯ই মে জেলার পোরশা উপজেলা খাদখোড়া গ্রামে ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূ পূর্ব পরিচিত ও দূর সম্পর্কের আত্মীয় হওয়ায় বাড়িতে বেড়াতে আসেন। এসময় রাত হয়ে গেলে বাড়িতে না গিয়ে থেকে যান আসামী আব্দুল হালিম। হঠাৎ করে রাত সাড়ে ১১টার সময় আসামী গৃহবধূর কাছে পানি চাইলে গৃহবধূর স্বামী বাড়িতে না থাকায় গৃহবধূ নিজেই তাকে পানি দিতে যায়। এসময় আসামি জাপটে ধরে জোর করে ওই গৃহবূকে ধর্ষণ করে। পরে ধর্ষনের শিকার গৃহবধূ আদালতে মামলা দায়ের করলে আদালত মামলাটি সংশ্লিষ্ট থানায় রেকর্ডের নির্দেশ দেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা তদন্ত শেষে আসামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন। আদালত চার কর্মদিবসের মধ্যে ৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে বৃহস্পতিবার তাকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেয়। রায় ঘোষনার সময় আসামী পলাতক থাকায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ারা জারি করা হয়।#

 



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৯৩৯১ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই