তারিখ : ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, সোমবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকায় সড়ক ভেঙ্গে ১০ গ্রামের দুর্ভোগ

ভালুকায় সড়ক ভেঙ্গে ১০ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ,মেরামতের উদ্যোগ নেই
[ভালুকা ডট কম : ৩০ অক্টোবর]
ভালুকা উপজেলার মল্লিকবাড়ী ইউনিয়নের নয়নপুর-হাজির বাজার সড়কের লাউতি নদীর স্লুইজ গেইট সংলগ্ন এলকায় প্রায় ১০০ ফুট পাকা রাস্তা ঢলের পানির তোড়ে ভেঙ্গে যাওয়ায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে দুর্ভোগ পোহাচ্ছে ১০ গ্রামের মানুষ। র্দীঘদিন অতিবাহিত হলেও রাস্তাটি মেরামতের কোন উদ্যোগ নেওয়া হয়নি।

রাস্তা ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ায় নয়নপুর হতে হাজির বাজার ঢাকা-ময়মনসিংহ মহা সড়ক পর্যন্ত তিন কিলোমিটার পথ যেতে হচ্ছে বিকল্প পথে ১০ কিলোমিটার ঘোরে। এতে এলকার উৎপাদিত কৃষিপন্য বাজারজাত করতে কৃষকদের তিনগুন পরিবহন ভাড়া পরিশোধ করতে হচ্ছে। ফলে কৃষকরা তাদের ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বলে অনেকে জানিয়েছেন। উল্লেখ্য গত ৫ ও ৬ অক্টোবরের প্রবল বর্ষণে উজানের পানি নেমে ব্যাপক জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হলে নয়নপুর-হাজিরবাজার সড়কের লাউতি নদীর ওই অংশে প্রায় ১০০ ফুট পাকা সড়ক ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

১২ অক্টোবর স্থানীয় এমপি আলহাজ কাজিম উদ্দীন আহম্মেদ ধনু, সহকারি কমিশনার ভূমি সুমাইয়া আক্তার, নির্বাহী প্রকৌশলী (পা,উ,বি) ময়মনসিংহ আখলাকউল জামিল, উপ-সহকারী প্রকৌশলী ( পা,উ,বি) ময়মনসিংহ গৌতম বিশ্বাস ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন। এ সময় রাস্তাটি দ্রুত সংস্কারের মাধ্যমে যোগাযোগ পুনঃ স্থাপনের আশ্বাস দেওয়া হলেও ২৫ দিন অতিবাহিত হওয়ার পরও কোন অগ্রগতি লক্ষ করা যায়নি। পানি নেমে যাওয়ার পর স্থানীয় লোকজন নিজেদের উদ্যোগে ডাইবেশন কেটে পায়ে চলার মত সরু পথ তৈরী করে চলাচল করছেন নিচ দিয়ে।

২৯ অক্টোবর সরজমিন ওই গ্রামে গেলে এলকার শহীদ মিয়া (৬০) আন্তাজ আলী (৬৫) আবুল হাসেম (৭০) তারা জানান কয়েকদিন আগের প্রবল বর্ষণে উজানের পানি আটকে পাকা রাস্তাটি ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। প্রায় এক মাস অতিবাহিত হলেও রাস্তাটি মেরামত না হওয়ায় যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। তারা জানায় দক্ষিনের তালাব, পালগাঁও, কাচিনা, তামাট, বাটাজোর, হবিরবাড়ী, কাশর, জামিরদিয়া ও শ্রীপুর উপজেলার মাওনা এলাকার বর্ষার পানি লাউতি নদীর  উপর এ অংশে একটি স্লুইজ গেইট দিয়ে রাস্তার অপর অংশে যেতে বাধা গ্রস্ত হয়ে ব্যাপক জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। এতে শত শত হেক্টর আমন ক্ষেত পানির নীচে তলিয়ে যাওয়ায় ধান পঁেচ নষ্ট হয়েছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ অপরিকল্পিত ভাবে স্লুইজ গেইট নির্মাণের কারনে ব্যাপক জলা বদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে এ সড়কটি এর আগেও একই স্থানে দুইবার ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। রাস্তা ভেঙ্গে যাওয়ায় নয়নপুর,পশ্চিম নয়নপুর, তালাব, পালগাঁও, কাদিগড়. কামারিয়াচালা, তামাট, টাশকাপাড়া এলাকার শত শত কৃষক তাদের উৎপাদিত কৃষিপন্য যেমন লাউ, সীম, বেগুন, পেপে, কলা, আঁখ ইত্যাদি ফসল এ সড়ক দিয়ে হাজির বাজার হয়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ সড়ক ব্যবহার করে বাজারজাত করতে পারছেন না। তাদেরকে ১০ কিলোমিটার পথ ঘুরে যেতে হচ্ছে। এ সড়কে চলাচলকারী দুই শতাধিক অটোচালক তাদের বেকার জীবন কাটাতে হচ্ছে বলে কয়েকজন অটোচালক জানিয়েছে। ওই গ্রামের মিনি ট্রাক চালক ধনু মিয়া জানান ওই সড়কে প্রতিদিন এক দেড়শ কাঁচামাল বাহি ট্রাক,কারখানার শ্রমিকবাহি বাস ও কয়েকশ অটো সিএনজি দিনরাত চলাচল করে থাকে যা বর্তমানে এ সড়কে বন্ধ রয়েছে।

তারা ১০ কিলোমিটার ঘুরে বিকল্প সড়কে মালামাল পরিবহন করছেন ফলে ভাড়া অনেক বেশী হওয়ায় অনেক কৃষক তাদের ক্ষেতের ফসল বিক্রি করে উপযুক্ত মূল্য পাচ্ছেন না। এলাকাবাসীর দাবী উল্লেখিত রাস্তাটি দ্রুত মেরামত সহ স্লুইজ গেইটের স্থলে অধিক পানি প্রবাহের জন্য একটি ব্রীজ কালভার্ট তৈরী করার জন্য কর্তৃপক্ষ পদক্ষেপ নিবেন। এ ব্যাপারে মল্লিকবাড়ী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আকরাম হোসাইন জানান অবিলম্বে রাস্তার ভেঙ্গে যাওয়া অংশে মাটি ভরাট করে চলাচলোপযোগি করা হবে। এ ব্যাপারে জানতে উপ-সহকারী প্রকৌশলী ( পা,উ,বি) ময়মনসিংহ গৌতম বিশ^াসের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিব করেননি।



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৮৯০৫ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই