তারিখ : ১৬ জুন ২০২৪, রবিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকায় অটোর দখলে মহা সড়ক

ভালুকায় অটোর দখলে মহা সড়ক,দুর্ঘটনায় প্রায়ই ঘটছে প্রাণহানি
[ভালুকা ডট কম : ২১ মে]
ঢাকা-ময়মনসিংহ ফোরলেন মহা সড়ক ভালুকা অংশে নিষিদ্ধ যান অটোর দখলে থাকায় দুরপাল্লার বাস ও ভারি যানবাহন চলাচলে ব্যাপক বিগ্ন সহ প্রায়ই দুর্ঘটনায় প্রাণহানি ঘটছে। মহা সড়কে সরকার নিষিদ্ধ অবৈধ ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা,ভ্যান ও সিএনজি দাপটের সাথে চলা চল করলেও আইন শৃংখলা বাহিনী কোন কার্যকর পদক্ষেপ নিচ্ছেনা।

সরজমিন দেখা যায় সকাল হতেই মহা সড়কের ভালুকা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ঝাকে ঝাকে ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা,ভ্যান ও সিএনজি ভীড় লাগায় যানজট তৈরী হয়। এতে ঢাকা-ময়মনসিংহগামী দুর পাল্লার বাস গুলি যানজটে পরে যাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়। অপর দিকে এসব অটো ভালুকা থেকে যাত্রী নিয়ে মহা সড়কে দাপটের সহিত বাসের সাথে পাল্লা দিয়ে বিভিন্ন গন্তব্যে চলে যাচ্ছে। মহা সড়কে চলাচলরত অদক্ষ অটোচালকদের অসাবধানতায় প্রায়ই দুর্ঘটনায় প্রাণহানি ঘটছে।

উল্লেখ্য গত ১৭ মে শুক্রবার মহা সড়কের ভালুকা হাজির বাজার এলাকায় বাস ও ব্যটারি চালিত অটোর সংঘর্ষ হলে অটোর যাত্রী আখালিয়া গ্রামের এমদাদুল (৫০) ঘটনাস্থলে মারা যান। এসময় অটোর অপর ৫ যাত্রী গুরুতর আহত হয়। হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সাভির্স কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। এ রকম দুর্ঘটনা অহরহ ঘটছে। এসব বন্ধে হাইওয়ে ও ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ হতে মাঝে মধ্যে অভিযান পরিচালনা হলেও পরবর্তীতে জলের উপর ডিল ছুড়ে পেনা সড়িয়ে দেয়ার মত পুনরায় যায়গা দখল করে নেয়। কার্যত কোন আইনি পদক্ষেপ না নেয়ায় অটোচালকরা মহা সড়ক ব্যবহার থেকে বিরত হচ্ছেন না।

ভালুকা বাসস্ট্যান্ড, সীডষ্টোর বাসস্ট্যান্ড, মাষ্টারবাড়ী বাসস্ট্যান্ড ও ভরাডোবা বাস্ট্যান্ড হতে মহা সড়ক ধরে এসব তিন চাকার আটো সিএনজি দিনরাত চলাচল করছে। মহা সড়কের উল্লেখিত বাসস্ট্যান্ড গুলিতে অটোরিক্সার জটলার কারনে পথচারি ও বাস যাত্রীরা বাসে উঠানামা করতেও চরম দুর্ভোগে পরে থাকেন। অটোরিক্সা, সিএনজি, লেগুনা চালকদের যানবাহন চালনায় কোন প্রাতিষ্ঠানিক প্রশিক্ষণ না থাকায় তাদের ট্রাফিক আইন ও মহা সড়কে যান চালনায় অভিজ্ঞতা নেই। ফলে যত্রতত্র রাস্তার মাঝখানে গাড়ি থামিয়ে যাত্রী উঠা নামা করা উল্টাপথে গাড়ী চালানো ইত্যাদি কারনে ভারি যানবাহন চলাচলে ব্যপক বিগ্নের সৃষ্টি হচ্ছে।পাশপাশি দুর্ঘটনায় প্রাণহানি হচ্ছে অহরহ। মহা সড়কের ভালুকা বাসস্ট্যান্ড হতে থানারমোড় ও কলেজ মোড় সব সময় অটোর জ্যাম লেগেই থাকে। মহা সড়ক থেকে গফরগাঁও সড়কের ভালুকা চৌরাস্তায় দাড়িয়ে থাকা শত শত সিএজি অটোর ভীড়ে পথ খুজে পায়না গন্তব্যে যাওয়া ভাড়ি যানবাহন গুলি।

মহা সড়কে চলাচলকারী ব্যাটারী চালিত অটো চালক সোলায়মান মিয়া (৩৫) জানান বড় রাস্তায় অটো চালানো নিষেধ জেনেও গ্রাম এলাকায় যাত্রী না পেয়ে তারা পেটের দায়ে যাত্রী নিয়ে জীবনের ঝুকি নিয়ে মহা সড়কে চলাচল করেন। এজন্য তারা পুলিশের তাড়া খেয়ে পালাতে না পারলে জরিমানা দিয়ে থাকেন আবার অনেক সময় পুলিশ অটো নিয়ে যায়।

স্থানীয় ভাবে যাত্রীদের চলাচলের জন্য হাইওয়ে মিনি লোকাল বাস রয়েছে। তার পরও মহা সড়কে অবৈধ অটো সিএনজির চলাচল দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। অনেকের ধারনা ভালুকার বিভিন্ন লিংক রোড হতে এসে প্রতিদিন হাজারের উপরে রিক্সা অটো সিএনজি মহা সড়ক ধাপিয়ে বেড়ায়। সারা উপজেলায় ৫ হাজারের উপরে ব্যাটারি চালিত রিক্সা ও অটোরিক্সা রয়েছে। পৌরসভার ট্রেড লাইসেন্স নিয়ে পৌর এলাকায় এগুলি চলাচল করে। আর গ্রাম এলাকায় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছ থেকে বাৎসরিক কর দিয়ে ট্রেড লাইসেন্স নিয়ে এসব অটো রিক্সা চলে। অভিজ্ঞ মহলের ধারনা চায়না হতে আমদানীকৃত যন্ত্রাংশ ও স্থানীয়ভাবে তৈরীকৃত বডির সংমিশ্রনে এসব যানবাহনের বি আর টি এ’র রেজিস্ট্রেশন সিস্টেম না থাকায় যেমন অবাদে এসব যান তৈরী বাড়ছে তেমনী এলাকা ভিত্তিক লাখ লাখ টাকা রাজস্ব আদায় হতে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার।

এর কারন হিসেবে অনেকে বলছেন কিছু অসাধু ব্যবসায়ী স্থানীয়ভাবে নিজস্ব কারখানায় অনুমোদনহীন ভাবে সরকারী টেক্স ফাঁকি দিয়ে ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা তৈরী করে বাজারজাত করায় সারা ভালুকায় এর উপস্থিতি ব্যপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। দুই সীটের পেডেল রিক্সাগুলিও এখন ব্যাটারি চালিত হওয়ায় নিয়ন্ত্রনহীন গতিতে চলতে গিয়ে প্রায়ই দুর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনা ঘটছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে সচেতন মহলের দাবী যারা অবৈধভাবে অটো তৈরী করছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা ও ব্যস্ততম ঢাকা-ময়মনসিংহ মহা সড়কে তিন চাকার ব্যাটারি চালিত অটো রিক্স্যা ও সিএনজি চলাচল বন্ধে অবিলম্বে সরকারের জারিকৃত নির্দেশ বাস্তবায়নে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৯৩৯০ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই