তারিখ : ১৭ নভেম্বর ২০১৮, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

প্রযুক্তি নির্ভর দেশ গড়তে সরকার কাজ করছে- প্রধানমন্ত্রী

প্রযুক্তি নির্ভর দেশ গড়তে সরকার কাজ করছে- প্রধানমন্ত্রী
[ভালুকা ডট কম : ২১ অক্টোবর]
তরুণদের জন্য প্রযুক্তি নির্ভর বাংলাদেশ গড়তে সরকার কাজ করছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, তরুণদের মনযোগ দিয়ে লেখাপড়া করতে হবে। তাদেরকে প্রযুক্তি সম্পর্কে আরও জানতে হবে। বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার জন্য যা যা করা দরকার আমরা তা করবো। আমরা বর্তমান প্রজন্ম তরুণদের জন্য উৎসর্গ করছি। কারণ তরুণরাই ভবিষ্যতে এই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

আজ (রোববার) সকালে গণভবনে মোবাইল নম্বর পোর্টেবিলিটি (এমএনপি) সেবা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এই সেবা চালুর ফলে গ্রাহকরা তার নম্বর অপরিবর্তিত রেখেই অপারেটর পরিবর্তনের সুযোগ পাবেন। ১ অক্টোবর থেকে বাংলাদেশে পরীক্ষামূলকভাবে এমএনপি সেবা চালু হয়েছে।

এমএনপি সেবা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার আরেকটি পদক্ষেপ এটি। একটা সিম থেকে যেকোনো অপারেটরে যাওয়ার যে আধুনিক প্রযুক্তি যা পৃথিবীর খুব সীমিত দেশ ব্যবহার করে, আমরা সেই যুগে প্রবেশ করছি। যদিও এটা একটা জটিল বিষয়, সেটাকে আজকে সহজভাবে করে দেয়া হয়েছে। এমএনপি সেবায় অনেকের সুবিধা হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা যতদিন ক্ষমতায় আছি এই পরিবর্তনশীল বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার জন্য যা যা পদক্ষেপ নেয়া দরকার সেই পদক্ষেপগুলো আমরা নেবো। আর তারা আমাদের ভবিষ্যতকে গড়ে তুলবে, এগিয়ে নিয়ে যাবে। এই চলার গতিটা যেনো কখনো থেমে না যায়। সারাদেশে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দেয়ার জন্য তার সরকারের উদ্যোগ তুলে ধরে বলেন, বর্তমান সরকার পাঁচ হাজার ২৭৫টি ডিজিটাল সেন্টার করে দিয়েছে। এতে সারাদেশ ইন্টারনেট সেবার আওতায় এসেছে। এখন সরকার সাবমেরিন ক্যাবলের তৃতীয় সংযোগ গ্রহণেরও চিন্তা-ভাবনা করছে। আমাদের ব্রডব্র্যান্ড সার্ভিস একেবারে উপজেলা ও গ্রাম পর্যন্ত পৌঁছে গেছে। প্রতিটি গ্রামকে আমরা শহরে উন্নীত করছি। অথচ বিএনপি সরকারের সময়ে বিনামূল্যে সাবমেরিন ক্যাবলে সংযুক্ত হবার সুযোগ তারা নষ্ট করেছিল দেশের তথ্য পাচার হয়ে যাবার কথা বলে।

সরকারের পদক্ষেপ তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা কোথায় ছিলাম, আর এখন কোথায় এসেছি। মাত্র ১০ বছরে এই পরিবর্তন হয়েছে। এটা সম্ভব হয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করেছে বলে। আর তরুণ প্রজন্ম ভোট দিয়েছে বলে।

পরে, বাংলাদেশের উপজেলা পর্যায়ে ৬৬টি শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম, ৬টি যুব প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, বিকেএসপি মাল্টি স্পোর্টস কমপ্লেক্সসহ ৭৩টি যুব ক্রীড়া স্থাপনা নির্মাণ প্রকল্প উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময়, সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরে তিনি বলেন, আগামীতে জনগণ নৌকা ভোট দিলে অসমাপ্ত কাজগুলো শেষ করা সম্ভব হবে। ফের আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে ২০২০ সালের বাংলাদেশ ক্ষুধা দারিদ্র্য মুক্ত করার কথাও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অন্যান্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৩৯ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই