তারিখ : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভাসানীর ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকীতে প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা

ভাসানীর ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকীতে প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা
[ভালুকা ডট কম : ১৭ নভেম্বর]
মওলানা ভাসানীর ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে তার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বাংলাদেশ ন্যাপ, এনডিপি, বাংলাদেশ কৃষক ন্যাপ, স্বেচ্ছাসেবক ন্যাপ, মহিলা ন্যাপ, ভাসানী সাহিত্য-সাংস্কৃতিক পরিষদ, জাতীয় সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম প্রমুখ সংগঠন।

রবিবার (১৭ নভেম্বর) নয়াপল্টনের যাদু মিয়া মিলনায়তনে মুক্তিযুদ্ধকালীন প্রবাসী সরকারের উপদেষ্টা কমিটির চেয়ারম্যান  মওলানা ভাসানীর ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ আয়োজিত প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, স্মরণসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন,স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীকে জাতিসত্তার অম্লান বাতিঘর হিসাবে আখ্যা দিয়ে ভাসানীকে বাদ দিয়ে জাতিসত্তার পূর্নাঙ্গ পরিচয় দেয়া সম্ভব নয়।

তিনি বলেন, ঘোর অন্ধকার অমানিশার দুর্যোগে দিশেহারা একজন নাবিক যেমনিভাবে অতিদূর থেকে একটি বাতিঘরের আলোকচ্ছটা অনুসরণ করে অভীষ্ট লক্ষ্যপথে এগিয়ে চলে, ঠিক তেমনি একটি দেশ ও জাতির সুদীর্ঘ যাত্রাপথে মওলানা ভাসানী তেমনি এক মহামানব।

তিনি আরো বলেন,ব্রিটিশ ভারতের ঔপনিবেশিক শোষণ-বঞ্চনার শেষ অর্ধশতাব্দীকাল থেকে শুরু করে পরবর্তী আরো তিন দশকব্যাপী এক বিশাল মহীরুহের মত পদ্মা-মেঘনা-যমুনা বিধৌত এই ভূখন্ডের মানুষের সকল দুর্যোগ ও জুলুম-নির্যাতনের বিরুদ্ধে ত্রাণকর্তার ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়ে বরাভয় ও ছায়াদান করেছেন যিনি তাঁর নাম মওলানা ভাসানী।আজ যখন সারা দেশে দুর্নীতি মহামারির আকার ধারন করেছে, লুটেরারা পেয়াজের নিয়ন্ত্রনহীন মূল্যবৃদ্ধির মাধ্যমে জনগনের পকেট কাটছে তখন মওলানা ভাসানীর শূণ্যতা জাতি উপলব্ধি করছে। ভাবছে এসবের বিরুদ্ধে কোথায় সেই বুলন্দ আওয়াজ? পল্টন ময়দান থেকে কে আজ ‘খামোস’ বলে রণহুংকার দেবে? আর কতকাল একজন ভাসানীর জন্য জাতিকে অপেক্ষা করতে হবে ? আমাদের জাতীয় চেতনা ও সমগ্র জাতিসত্তার অম্লান বাতিঘরখানি আজ মহাকালের গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। জাতির এই মহাসংকটে মওলানা ভাসানীর অভাব আমরা মর্মে মর্মে অনুভব করছি।

ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া'র সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ সভাপতি এম এ জলিল, এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, ন্যাপ ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, যুগ্ম মহাসচিব মো. আতিকুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শহীদুননবী ডাবলু, মো. কামাল ভুইয়া, মহানগর উল্টর আওয়ামী লীগ নেতা আ স ম মোস্তফা কামাল, ন্যাপ ঢাকা মহানগর সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মো. নজরুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক মো. শামিম ভুইয়া, শ্রম সম্পাদক মো. হাবিবুর রহমান, মহিলা সম্পাদিকা সাদিয়া ইসলাম ঈমন প্রমুখ।





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

রাজনীতি বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২২৮ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই