তারিখ : ১২ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

প্রস্রাবে ইনফেকশন ও করণীয়

প্রস্রাবে ইনফেকশন ও করণীয়
[ভালুকা ডট কম : ০৬ সেপ্টেম্বর]
সাধারণত ছেলেদের চেয়ে মেয়েদের প্রস্রাবে জীবাণু সংক্রমণ (Urinary tract infection) UTI বেশি হয়। মেয়েদের মূত্রনালির দৈর্ঘ্য কম এবং মলদ্বারের কাছাকাছি তাই খুব সহজে জীবাণু মূত্রনালিতে প্রবেশ করতে পারে।

প্রস্রাবে ইনফেকশনের কারন:
* স্বাভাবিকের কম পানি পান।
* দীর্ঘক্ষণ প্রস্রাব আটকে রাখা।
* অপরিস্কার অপরিচ্ছন্ন থাকা।
* নোংরা পানির ব্যবহার করা।
* মিলনের আগে পরে প্রস্রাব না করা।
* মূত্রতন্ত্রের গঠনগত সমস্যা।
* মূত্রতন্ত্রে কোথাও পাথর থাকলে।
* মেনোপজ বা স্থায়ী মাসিক বন্ধ।
* ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে না থাকা।
* দীর্ঘমেয়াদি স্টেরয়েড খেলে।

লক্ষণ :
ঘন ঘন প্রস্রাবের বেগ।
প্রস্রাবের তাড়না।
মূত্রনালিতে জ্বালা।
তলপেটে অস্বস্তি।
তলপেটে প্রচণ্ড ব্যথা।
প্রস্রাব ঘোলা হওয়া।
প্রস্রাবে সঙ্গে রক্ত।
কাঁপানো জ্বর এবং
কোমরে ব্যথা দেখা দেয়।

চিকিৎসা :
রক্ত, প্রস্রাব, এক্সরে ও পেটের আল্ট্রাসনোগ্রাফি পরীক্ষা করে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী এন্টিবায়োটিক খেতে হবে। সাথে সংক্রমণের কোন কারন থাকলে সেটিরও চিকিৎসা করতে হবে।

প্রস্রাবে জীবাণু সংক্রমণ প্রতিরোধ-
১। প্রস্রাবের আটকে না রাখা।
২। প্রস্রাবের পর টিসু পেপারে  না ঘষা।
৩। পায়খানা থেকে প্রস্রাবের রাস্তা না মুছা।
৪। পরিমিত পানি পান করা।
৫। গরমের দিন বেশি পানি পান।
৬। কোষ্ঠ্যকাঠিন্য এড়িয়ে চলা।
৭। আঁশযুক্ত খাবার খাওয়া।
৮। মিলনের আগে পানি পান।
৯। মিলনের পরে প্রস্রাব করা।
১০। মাসিকের সময় মিলন নয়।





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

স্বাস্থ্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২২০ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই