তারিখ : ২৬ নভেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নওগাঁয় ৯৬টি বিদ্যালয়ের মধ্যে শহীদ মিনার মাত্র ২টিতে

নওগাঁয় ৯৬টি সরকারি বিদ্যালয়ের মধ্যে শহীদ মিনার আছে মাত্র ২টিতে
[ভালুকা ডট কম : ১৯ ফেব্রুয়ারী]
নওগাঁর সীমান্তবর্তি সাপাহার উপজেলার ৯৬টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ৯৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রাষ্ট্র ভাষা ছিনিয়ে আনা ভাষা শহীদদের স্মরণে নেই শহীদ মিনার। শহীদ মিনার কি এবং কাকে বলে, শহীদ মিনার কেন নির্মাণ করা হয়েছিলো এরকম প্রশ্নের উত্তর জানে মাত্র ২টি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

সরকারিভাবে প্রত্যেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করার নির্দেশনা রয়েছে তবে এই ভাষাকে ছিনিয়ে আনা ভাষা সংগ্রামের ৬৮বছর পার হলেও কিন্ত আজও সব সরকারি প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভাষা শহীদদের স্মরণে বেশির ভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেই শহীদ মিনার। কোমলমতী শিক্ষার্থীরা এখন থেকে এটাকে স্মরণ না করলে হয়তো ভুলেই যাবে আন্দোলনের মাধ্যমে এই রাষ্ট্র ভাষা বাংলাকে আমরা ছিনিয়ে এনেছি। রাস্তায় অনেক রক্ত ঝরাতে হয়েছে দামাল ছেলেদের। কিন্তু কোমলমতী শিশু শিক্ষার্থীদের জানাতে হবে জানতে হবে এই ইতিহাসকে তাই প্রতিটি বিদ্যালয়ে ১টি করে শহীদ মিনার স্থাপন করার দাবী প্রবীণ ব্যক্তিদের।

কিন্তু বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রতি বছর নিজস্ব উদ্যোগে অস্থায়ী শহীদ মিনার তৈরি করা হয় কোন কোন বিদ্যালয়ে এই দিবসটিকে পালনও করে না। এছাড়া যদিও বার্থীদের আসতে বলে এসে হয়ত অস্থায়ী শহীদ মিনার তৈরি করে বা শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে মাইল মাইল পথ প্রভাত ফেরির জন্য খালি পায়ে হেঁটে নিয়ে যাওয়া হয় ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য।

বৈদ্যপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছাদেক উদ্দীন বলেন আমাদের বিদ্যালয়ে কোন শহীদ মিনার নেই আমাদের ফুল দেওয়ার জন্য ৮কিলোমিটার দূরত্বে সাপাহারে যেতে হয় এই জন্য অনেক কষ্ট হয় তাই প্রতিটি বিদ্যালয়ে স্থায়ীভাবে শহীদ মিনার তৈরি করার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তঅ শহিদুল আলম বলেন, আমরা বিদ্যালয়ে চিটি দিয়েছি দিবসটি উদযাপন করার জন্য এবং উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করব যাতে করে উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার স্থাপন করা হয়।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

শিক্ষাঙ্গন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৯৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই