তারিখ : ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, বৃহস্পতিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

শ্রীপুরে পৌর নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী শহিদ মারা গেছেন

শ্রীপুরে পৌরসভা নির্বাচন
বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী শহিদুল্লাহ শহিদ মারা গেছেন, সংশ্লিষ্ট পদ ছাড়া অন্যান্য পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে
[ভালুকা ডট কম : ০৯ ডিসেম্বর]
গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী ও শ্রীপুর পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শহিদুল্লাহ শহিদ (৪৫) বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।(ইন্নালিল্লাহি .........রাজিউন)। তিনি শ্বাসকষ্টসহ করোনা পজিটিভ হয়ে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ঘোষিত তফছিল অনুযায়ী আগামী ২৮ ডিসেম্বর শ্রীপুর পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা রয়েছে। শহিদুল্লাহ শহিদ আগামী ২৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য শ্রীপুর পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী ছিলেন।

শ্রীপুর পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম আবুল কালাম আজাদ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গত প্রায় ১৫দিন আগে তিনি শ্বাসকষ্ট ও করোনা পজেটিভ হয়ে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সবশেষ তাকে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁর পক্ষে দলীয় নেতাকর্মীরা রিটার্ণিং কর্মকর্তার কাছে নির্বাচনী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকলেও তাঁর পক্ষে দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকেরা নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছিলেন। বাদ এশা মাওনা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে তার জানাযা অনুষ্ঠিত হবে।

প্রসঙ্গত, পৌরসভা নির্বাচনে তিন প্রার্থীর মধ্যে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী শহিদুল্লাহ শহিদ ছাড়াও আওয়ামীলীগ মনোনীত গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনিছুর রহমান আনিছ ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ফরহাদ আহমেদ মোমতাজী রয়েছেন। ঘোষিত তফছিল অনুযায়ী ১০ ডিসেম্বর মনোনয়ন প্রত্যাহার, ১১ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ এবং ২৮ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা রয়েছে।

শ্রীপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এ এম শামসুজ্জামান জানান, প্রতিষ্ঠার পর এটি পৌরসভার চতুর্থ নির্বাচন। পৌরসভার মোট আয়তন ৪৬.৯৭ বর্গ কিলোমিটার। মোট জনসংখ্যা ২ লাখ ৬০ হাজারের মধ্যে প্রায় অর্ধেক নারী। ভোটার সংখ্যা ৬৭ হাজার ৯৩৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৩৩ হাজার ৮৩২ ও মহিলা ৩৪ হাজার ১০৩ জন। মোট ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ২৬টি। পৌরসভায় তিনটি সংরক্ষিত ওয়ার্ড এবং ৯টি সাধারণ ওয়ার্ড রয়েছে।

নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কাজী ইস্তাফিজুল হক আকন্দ জানান, যে প্রার্থী মারা গেছেন তিনি যে পদে ছিলেন কেবলমাত্র ওই পদের নির্বাচন আইন অনুযায়ী স্থগিত হয়ে যাবে। তবে অন্যান্য পদ সমূহে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ প্রার্থীর মৃত্যুর খবর শুনে তিনি নির্বাচন কমিশনের সাথে কথা বলে পরে সংশ্লিষ্ট পদে নির্বাচন স্থগিতের গণবিজ্ঞপ্তি জারি করবেন বলেও জানান।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

শোক সংবাদ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩০৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই