তারিখ : ১৫ মে ২০২১, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

রাণীনগরে শিক্ষক-ছাত্রীর অনৈতিক ভিডিও ভাইরাল

রাণীনগরে শিক্ষক-ছাত্রীর অনৈতিক ভিডিও ভাইরাল,দৃষ্টান্তর মূলক শান্তি দাবী অভিভাবক মহলের
[ভালুকা ডট কম : ০২ মে]
নওগাঁর রাণীনগরের ঐতিহ্যবাহী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক (লাইব্রেরীয়ান) সাদেকুল ইসলাম পিটুর সঙ্গে তার এক ছাত্রীর অনৈতিক কর্মকান্ডের ভিডিও ফাঁস হয়েছে। বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওটি এখন টপ-অব-দা সাবজেক্টে পরিণত হয়েছে।

চা দোকান থেকে শুরু করে সর্বত্রই এই টপ-অব-দ্যা সাবজেক্ট নিয়ে চলছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ স্থানীয় ভাবে ওই শিক্ষকের অনৈতিক কর্মকান্ডের বিষয়টি প্রয়োজনীয় তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থার দাবি উঠেছে। এ রকম ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপিটে মেয়েরা কতটুকু নিরাপদ এ নিয়ে অভিভাবক মহলে চলছে সমালোচনার ঝড়।

জানা গেছে, উপজেলা সদরের প্রাণ কেন্দ্রে ১৯৭৭ সালে নারীদের শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে কিছু শিক্ষানূরাগীর উদ্যোগে রাণীনগর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় নামে এক স্কুল স্থাপন করা হয়। সেই থেকে শত শত মেয়েরা এই বিদ্যালয় থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে ব্যক্তিগত জীবনসহ জাতীয় উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ পদে কাজ করে যাচ্ছে। সুনামের দিক থেকে এই বিদ্যালয়টি অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের চেয়ে অনেক এগিয়ে। কিন্তু হঠাৎ করে অভিভাবক মহলে উদ্বিগ্ন সৃষ্টি করছে ওই শিক্ষক ও তার ছাত্রীর সঙ্গে অনৈতিক কর্মকান্ডের বিষয়টি। গত প্রায় ১৪বছর আগে উপজেলার সদর ইউনিয়নের বেলবাড়ি গ্রামের মৃত আশরত আলী মিনার ছেলে মোঃ সাদেকুল ইসলাম পিটুকে স্কুল কর্তৃপক্ষ সহকারি শিক্ষক (লাইব্রেরিয়ান) পদে নিয়োগ দেন। স্কুলে শিক্ষকতার পাশাপাশি সে স্কুলের পার্শ্ববর্তী এক বাড়িতে প্রাইভেট পড়াতেন। এই সুযোগে জনৈক এক ছাত্রীর সঙ্গে অনৈতিক কর্মকান্ডের ভিডিও ঘত শনিবার নতুন করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে গত কয়েক দিন ধরে এই বিষয়টি রাণীনগরের গরম খবরে পরিণত হয়েছে।

অভিভাবক মঞ্জু রশিদ জানান, এরকম ন্যাক্কার জনক কথা শুনতে খারাপ লাগে ঘটনার তদন্ত করে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনগত দৃষ্টান্তর মূলক শাস্তির ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।অভিযুক্ত শিক্ষক সাদেকুল ইসলাম পিটু’র সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে ফোন বন্ধ থাকায় তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আবুল কালাম আজাদ জানান, প্রায় এক বছর আগে শিক্ষক সাদেকুল ইসলাম পিটুর কাছে স্কুলের বাহিরে একটি বাড়িতে প্রাইভেট পড়ার সুযোগে এক ছাত্রীর সাথে অনৈতিক সম্পর্কের বিষয়টি নিয়ে গুঞ্জন শুরু হলে ওই শিক্ষার্থী টিসি নিয়ে অন্যত্র চলে যায়। কিন্তু গত শনিবার থেকে জানতে পারছি ওই ছাত্রী এবং শিক্ষক সাদেকুলের অনৈতিক কর্মকান্ডের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নতুন করে ভাইরাল হয়েছে। বিষয়টি জানতে পেরে ম্যানিজিং কমিটির সভাপতি এবং মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে বিষয়টি জানিয়েছি। তবে এ পর্যন্ত কেহ আমার কাছে অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত স্বাপেক্ষে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অন্যান্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩১০ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই