তারিখ : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

সখীপুরে ক্ষুদে তিন উদ্দ্যোক্তার স্বপ্ন লুট করলো দূবৃত্তরা

সখীপুরে ক্ষুদে তিন উদ্দ্যোক্তার স্বপ্ন লুট করলো দূবৃত্তরা
[ভালুকা ডট কম : ০২ আগস্ট]
টাঙ্গাইলের সখীপুরে স্কুল পড়ুয়া তিন ক্ষুদে উদ্দ্যোক্তার স্বপ্নের ৩২০ টি হাঁস ছিনিয়ে নিয়ে  স্বপ্ন লুট করলো দুর্বৃত্তরা। রবিবার বিকেলে উপজেলার  গজারিয়া ইউনিয়নের ইছাদিঘী আতিয়া পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অনেক কষ্টের লালিত স্বপ্নের হাসগুলো হারিয়ে ভেঙে পড়েছে ওই গ্রামের স্কুল পড়ুয়া রাফিউল খান, রিফাত খান ও নঈম মিয়া নামের তিন শিক্ষার্থী।

জানা যায়, করোনার কারনে গত বছরের মার্চ থেকে সারাদেশে একযোগে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। বাড়িতে লেখাপড়ার পাশাপাশি স্কুল সময়টা কাজে লাগানোর মনোভাব নিয়ে উপজেলার ইছাদিঘী আতিয়াপাড়া গ্রামের স্কুল পড়ুয়া তিন উদ্যোক্তা রাফিউল খান, রিফাত খান ও নঈম হাঁস পালনের উদ্যোগ নেয়। পাঁচ মাস আগে তারা স্থানীয় বাজার থেকে আট হাজার টাকা দিয়ে ৩২০টি হাসের বাচ্চা ক্রয় করে। দীর্ঘ পাঁচ মাস লালন পালন করার পর হাঁস গুলো ডিম দিতে শুরু করে। গত ১ আগস্ট রবিবার সকালে বাড়ির পাশের এক অনাবাদী জলাশয়ে হাসগুলো ছেড়ে দেয়। বিকেলে হাঁসগুলো বাড়িতে আনতে গেলে পার্শবর্তী গিলাচালা গ্রামের ১৫ থেকে ২০জন যুবক  তাদের পালিত হাস ওই হাসের দলে চলে আসছে দাবি করে তাদের ৩২০টি হাস জোরপূর্বক নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে ওই ছাত্র জানায়, ৮ হাজার টাকা পুজি নিয়ে শুরু করলেও গত ৫ মাস হাসগুলো লালন পালন করতে তাদের প্রায় ৫০ হাজার টাকার মতো খরচ হয়েছে। তারা বলছে ওরা আমাদের হাস নয় আমাদের লালিত স্বপ্ন ছিনিয়ে নিয়েছে। তারা তাদের হাস উদ্ধার এবং দায়ীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

স্থানীয় ইউপি সদস্য রজব আলী বলেন, এ ব্যাপারে উভয় পক্ষের সাথে কথা হয়েছে। বিষয়টি মিমাংসার চেষ্টা চলছে।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩১৯ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই