তারিখ : ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকায় সাইকেলের চাকায় চলছে হকার আইন উদ্দীনের জীবন

ভালুকায় সাইকেলের চাকায় চলছে হকার আইন উদ্দীনের জীবন
[ভালুকা ডট কম : ১০ ফেব্রুয়ারী]
“লাগবো আজকের তাজা খবর, ইত্তেফাক, সংবাদ, বাংলারবাণী পত্রিকা” প্রতিদিন সকাল বেলায় ৭/৮ বছরের হাফপ্যান্ট পরাএকটি ছেলে পত্রিকা নিয়ে বাসায় বাসায় বিভিন্ন অফিসে পৌছে দিতেন সবার হাতে হাতে চাহিদানুযায়ী যার যার পছন্দ মত বিভিন্ন সংবাদপত্র। আজ হতে প্রায় ৪২ বছর পূর্বে ১৯৭৮ সালের দিকে গফরগাঁও রেলওয়ে বুকষ্টল হতে রেডিও মেকার বাচ্চু মিয়া মাত্র ১০ কপি “সংবাদ” পত্রিকা এনে ভালুকায় বিভিন্ন যায়গায় দিয়ে পাঠক তৈরী শুরু করেন।

পরবর্তীতে পত্রিকা বিতান নামে একটি এজেন্সীর মাধ্যমে গফরগাঁওয়ের বাচ্চু মিয়া ভালুকায় প্রথম সংবাদপত্রের দোকন শুরু করেন।এর আগে দু’ একটি দৈনিক পত্রিকা নদীপথে লঞ্চযোগে ভালুকায় আসতো। পাঠক ছিলেন হাতে গুনা কয়েকজন মাত্র। ওই সময় দোকানপাট অফিস কাচারী ছিল খুবই কম। ঢাকা ময়মনসিংহ মহা সড়ক চালু হওয়ার পর ভালুকায় উন্নয়নের ছোয়া লাগতে শুরু করে। ৮০’র দশকে দেশের বিরাজমান পরিস্থিতিতে সংবাদপত্রের কদর বেড়ে যায় ভালুকাতেও। বাচ্চুমিয়া ঢাকা হতে সরাসরি পত্রিকা আনতে শুরু করেন। ঠিক ওই সময় পত্রিকা পাঠকের দ্বারে পৌছেদিতে প্রয়োজন হয় হকারের। ভালুকার রাস্তায় ঘুরতে দেখে আইন উদ্দীন কে পত্রিকা বিক্রির কাজে লাগিয়ে দেন বাচ্চু মিয়া। কিশোর আইন উদ্দীন বাচ্চু মিয়ার বিশ্বস্ত ও অনুগত হয়ে উঠেন। পত্রিকা বিক্রি করে মোটামোটি দুবেলা আহার যোগার করতে পারে আইন উদ্দীন।

শিল্প কারখানা স্থাপন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রসার, প্রশাসনের রদবদলে থানা উপজেলায় রুপান্তর হওয়ায় অফিস আদালত বেড়ে যায়। আস্তে আস্তে ভালুকায় জন বসতি বেড়ে যাওয়ায় সংবাদ পত্রের চাহিদা অনেক বেড়ে যায়। আর তখন আইন উদ্দীন কমিশনে পত্রিকা বিক্রি শুরু করেন। শিশু আইন উদ্দীন সংবাদপত্র হাতে নিয়ে কৈশোর, যৌবন পেরিয়ে বার্ধক্যে উপনীত হতে চলেছে। পাঠক বেড়ে যাওয়ায় এক সময় একটি সাইকেল কিনে পিছনের ক্যারিয়ারে বক্স তৈরী করে তাতে সংবাদপত্র বহন করে পাঠককে পৌছে দিতে শুরু করেন। 

৪০ বছরওে ভাগ্য পরর্বিতণ হয়নি পত্রকিা হকার আইনউদ্দনিরে। প্রায় ৪০ বছর যাবৎ ভালুকায় পত্রকিা বক্রিি করে জীবীকা নর্বিাহ করছনে তনি। হাফ পন্টে পড়া অবস্থায় পত্রকিা বক্রিি শুরু করছেলিনে এই আইনউদ্দনি। ২ ছলেে ও এক ময়েরে জনক। কষ্ট করে ২ সন্তানকে প্রাতষ্ঠিানকি শক্ষিায় শক্ষিতি করছে।এখন বয়সরে ভারে অনকেটাই নজু।এইচ এসসি পাশ ছলেকেে একটি র্কমসংস্থানরে ব্যাবস্থা/চাকুরীর দওেয়ার জন্য মানুষরে দ্বাড়ে দ্বাড়ে ঘুরছে মাসরে পর মাস। শল্পি উদ্যোক্তা ও শল্পি র্কমর্কতাগণরে সদয় দৃষ্টি আর্কশণ করে অনুরোধ জানাই হকার আইনউদ্দনিরে পাশে দাঁড়ানোর জন্য।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

লাইফস্টাইল বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩২৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই