তারিখ : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নান্দাইলে নিরীহ পরিবারের সাংবাদিক সম্মেলন

নান্দাইলে নিরীহ পরিবারের জায়গা ও মালামাল উদ্ধারের দাবীতে সাংবাদিক সম্মেলন
[ভালুকা ডট কম : ১৮ সেপ্টেম্বর]
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলায় নিরীহ পরিবারের বাড়ি-ঘর ভাংচুর, মালামাল লুট ও জায়গা দখলের প্রতিবাদ সহ দখলীয় জায়গা ও মালামাল উদ্বারের দাবীতে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) নান্দাইল প্রেসক্লাব মিলনায়তনে নিরীহ পরিবার মো. আব্দুল হামিদ গংদের আয়োজনে এ সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। আব্দুল হামিদের বাড়ি নান্দাইল উপজেলার জাহাঙ্গীরপুর ইউনিয়নের রায়পাশা গ্রামে।

সাংবাদিক সম্মেলনে আব্দুল হামিদের লিখিত বক্তব্যে জানাগেছে, প্রতিপক্ষ একই গ্রামের মফিজ উদ্দিনের পুত্র রবিউল আওয়াল, মৃত আলিম উদ্দিনের পুত্র শহিদ, মৃত জহির আলীর পুত্র ইব্রাহিম গংদের সাথে দীর্ঘদিন জমি-জমা সংক্রান্ত মামলা মোকাদ্দমা চলে আসছিল। একপর্যায়ে গত ২৩শে মার্চ ২০২০ইং সনে উভয় পক্ষের মধ্যে মারামারি সংঘটিত হয়। এতে প্রতিপক্ষের লোক ইস্রাফিল আহত অবস্থায় ঘটনার পরদিন হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। পরে মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে প্রতিপক্ষরা নিরীহ আব্দুল হামিদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়ি-ঘর ভাংচুর ও বাড়িতে থাকা গবাদী পশু-পাখি সহ ঘরে মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়। বাড়ি-ঘরের চি‎হ্ন নিশ্চি‎‎হ্ন করে জমি-জমা দখলে নিয়ে যায়। সংবাদ সম্মেলনে আব্দুল হামিদ সহ নিরীপ পরিবারের অন্যন্যা সদস্যরা জানান, ইস্রাফিল হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেও প্রতিপক্ষরা নিরীহ পরিবারের ১৭জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত আরো ২/৩কে আসামী করে নান্দাইল মডেল থানায় মামলা নং ৩৫/২০২০ একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। এ দিকে বাড়ি-ঘর ভাংচুর, জায়গা দখল ও মালামাল লুটের ব্যাপারে নিরীহ পরিবারের পক্ষ থেকে পরিবারের সদস্য (ভাতিজা) হজর আলী ওরফে ফজর আলী বাদী হয়ে নান্দাইল মডেল থানায় একটি এজাহার দায়ের করলেও তা আমলে না নেওয়ায় জেলা ময়মনসিংহের বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে (দ্রুত বিচার) আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলা নং ১৫/২০২০। এতে বিজ্ঞ বিচারক নান্দাইল মডেল থানা পুলিশকে তদন্ত প্রতিবেদন প্রেরনের নির্দেশ দেওয়া হলে দীর্ঘ ২ বছর পেরিয়ে গেলেও কোন তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে নাই। বরং অহেতুক মিথ্যা হত্যা মামলায় ১৭মাস জেল হাজতে আটকে রাখা হয়। পরে জামিনে এসে পুনরায় উক্ত মামলাটির তদন্তের জন্য আবেদন করলে ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২ইং বিজ্ঞ আদালত নান্দাইল থানা পুলিশকে তদন্ত প্রতিবেদন পাঠানোর জন্য নির্দেশ প্রদান করে। 

বর্তমানে প্রতিপক্ষের হাত থেকে রেহাই পাওয়া সহ জায়গা ও লুটকৃত মালামাল উদ্ধারের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, মাননীয় সংসদ সদস্য সহ মানবাধিকার সংগঠন ও উর্ধ্বতন প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছেন নিরীহ পরিবারের সদস্যবৃন্দ। সাংবাদিক সম্মেলনে নান্দাইলে কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ সহ নিরীহ পরিবারের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

মিডিয়া বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫২২২ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই