তারিখ : ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি

আসন্ন গোনা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি?
[ভালুকা ডট কম : ০৩ অক্টোবর]
আগামী ১১নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। এই নির্বাচনকে ঘিরে উপজেলায় শুরু হয়েছে আগাম নির্বাচনী প্রচার কাজ। ধীরে ধীরে চাঙ্গা হয়ে উঠছে নির্বাচনী এলাকাগুলো। এখন শুধু অপেক্ষার পালা কারা হচ্ছেন নৌকার মাঝি তা দেখার।

ছোট যমুনা নদীর তীরে অবস্থিত উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের মধ্যে অন্যতম ৩নং গোনা ইউনিয়ন পরিষদ। প্রয়াত এমপি ইসরাফিল আলমের বাড়ি এই ইউনিয়নে। এই ইউনিয়ন পরিষদ ২১টি গ্রাম নিয়ে গঠিত। মোট ভোটার হচ্ছে ১৬হাজার ৫শত ৯৭জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৮হাজার ৩শত ৩৫জন এবং মহিলা ভোটার ৮হাজার ২শত ৬২জন।

আসন্ন নির্বাচনকে ঘিরে এই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের একাধিক মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যান আবুল হাসনাত খাঁন হাসান, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আব্দুল আরিফ রাঙ্গা, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আবু সাইদ, ইউপি আওয়ামীলীগের উপদেষ্ঠা আব্দুল খালেক মন্ডল ও সহ-সভাপতি আব্দুল মজিদ শাহ। তবে ইউনিয়নের যুব সমাজ থেকে শুরু করে সকল মহলে আব্দুল আরিফ রাঙ্গার নাম জোড়েসোড়ে শোনা যাচ্ছে।

আবুল হাসনাত খাঁন হাসান বলেন আমার রক্তের সঙ্গে বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামীলীগের আদর্শ মিশে আছে। আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর ইউনিয়ন পরিষদে একটি স্বচ্ছ পরিবেশ ফিরে আনার চেস্টা করেছি। আমি এই ইউনিয়নবাসীর কাছে অতি চেনা মুখ। ইউনিয়নবাসী আমাকে কাজের মাধ্যমে চেনেন। তাই আমি আশাবাদি আমার সবকিছু বিচার করে দল আবার আমাকেই নৌকার মাঝি করবেন।

আব্দুল আরিফ রাঙ্গা বলেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ ও লালন করে ১৯৯৩ থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতির মাধ্যমে রাজনীতিতে প্রবেশ করেছি। এরপর থেকে রাজপথেই রয়েছি। ইউনিয়নবাসী পরিবর্তন চায়। যারা শুধু আওয়ামীলীগের আদর্শকে শরীরে জড়িয়ে মুখে বুলি আওরায় কিন্তু কাজে নেই জনগন তাদেরকে আর চায় না। আমি বিগত সময়ে সাবেক এমপির মাধ্যমে জেলে গিয়েছি, অনেক নির্যাতিত ও অত্যাচারিত হয়েছি। তবুও আমি আওয়ামী আদর্শ থেকে বিন্দুমাত্র বিচ্যুৎ হইনি। আমি আশাবাদি বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা এবার দলের জন্য ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করবেন। তৃণমূলের মতামতের ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকেই মনোনয়ন দেবেন এটাই প্রত্যাশা করছি।

আবু সাইদ বলেন আমি আওয়ামীলীগের জন্য সব সময় রাজপথে থেকেছি আগামীতেও থাকবো। দল যদি আমাকে মনোনয়ন দেয় তাহলে নির্বাচন করবো তা না হলে যে নৌকা প্রতিক পাবেন তার হয়েই কাজ করবো।

আব্দুল খালেক মন্ডল বলেন আমি এই ইউনিয়নের ৩বার নির্বাচিত মেম্বার ছিলাম। তাই ইউনিয়নের মানুষ আমাকে ভালো ভাবেই জানেন ও চেনেন। মানুষ এখন স্বচ্ছ পরিবর্তন চায়। আমি সুযোগ পেলে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি গ্রামে গ্রামে বাস্তবায়ন করতে চাই।

আব্দুল মজিদ শাহ বলেন আওয়ামীলীগের নামে সাধারন মানুষদের ফাঁকি দেওয়া, হয়রানী করা ও বিভিন্ন ভাতার কার্ড দেওয়ার নামে নিজের পকেট ভরানোর রীতি থেকে এই ইউনিয়নের মানুষদের রেহাই দেওয়ার শপথ থেকেই নির্বাচনে অংশ নেওয়া। দল যদি আমাকে মনোনয়ন দেয় তাহলে আমি কথায় নয় কর্মের মাধ্যমে প্রতিটি মানুষের মাঝে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীকে শত বছর বাঁচিয়ে রাখার চেস্টা করবো।

উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক রোকনুজ্জামান খাঁন রুকু বলেন কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করছে নির্বাচনে অংশগ্রহনের বিষয়টি। যদি দল সিদ্ধান্ত নেয় যে বিএনপি ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে তাহলে আমরা প্রার্থীর তালিকা পাঠাবো। সেক্ষেত্রে কেন্দ্র যাকে মনোনয়ন দিবে আমরা তার হয়েই কাজ করবো।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের সাংসদ আলহাজ্ব মো. আনোয়ার হোসেন হেলাল বলেন তৃনমূলের জরিপের ভিত্তিতে আমরা তালিকা পাঠাবো। পরবর্তিতে দল যাকে চ’ড়ান্ত মনোনয়ন দিবে আমরা তার হয়েই কাজ করবো।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহমুদ হাসান বলেন তফশিল ঘোষনার পর আমরা একটি সুষ্ঠ ও সুন্দর নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু করেছি।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

নির্বাচন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩২৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই